ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২

আন্তর্জাতিক

জঙ্গিবাদের কেন্দ্রস্থলে এখন স্বাস্থ্যকেন্দ্র, গ্রামবাসীর সন্তোষ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০১ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৭, ২০২০
জঙ্গিবাদের কেন্দ্রস্থলে এখন স্বাস্থ্যকেন্দ্র, গ্রামবাসীর সন্তোষ কাশ্মীরের গাতিপোড়ায় স্বাস্থ্যকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ চলছে

দক্ষিণ কাশ্মীরের সোফিয়ান জেলার কেল্লার ব্লকের গাতিপোড়ায় আধুনিক চিকিত্সা সামগ্রী সমৃদ্ধ একটি প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার পথে। এক সময় জঙ্গিবাদের কেন্দ্রস্থল হিসেবে বিবেচিত প্রত্যন্ত এলাকাটিতে আধুনিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র নির্মাণ করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন স্থানীয় গ্রামবাসী।

স্থাস্থ্যকেন্দ্রটির নির্মাণ কাজ শেষ হলে ওই অঞ্চলের চব্বিশটি গ্রামের প্রায় ২৫ হাজার অধিবাসী উপকৃত হবে বলে জানান স্থানীয় বাসিন্দা ফায়জ-উল-জামা।

তিনি বলেন, আমরা ভারত সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞ যে, সময়মতো স্বাস্থ্যকেন্দ্রের নির্মাণ শুরু হয়েছে এবং দারুণভাবে সেটার পর্যবেক্ষণ কাজও চলছে। এই স্বাস্থ্যকেন্দ্র নির্মিত হলে এখানকার লোকেরা ভালো স্বাস্থ্যসেবা পাবে।

দক্ষিণ কাশ্মীরের সোফিয়ান জেলার কেল্লার ব্লককে জঙ্গিবাদের কেন্দ্রস্থল হিসেবে বিবেচনা করা হতো। প্রতি সপ্তাহে এই ব্লকে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সন্ত্রাসীদের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতো। গাতিপোড়া অঞ্চলটি সোফিয়ান জেলার একটি পশ্চাৎপদ অঞ্চল, যেখানে বেশিরভাগ লোকের কর্মসংস্থানের ভালো ব্যবস্থা নেই।

আবদুল আজিজ নামে আরেক স্থানীয় বলেন, এই স্থাস্থ্যকেন্দ্রের মাধ্যমে প্রায় ২৫ হাজার লোক উপকৃত হবে। গ্রামবাসী সময়মতো চিকিত্সা ও ওষুধ পাবে। আমরা ভারত সরকারের কাছে কৃতজ্ঞ, আমরা খুবই আনন্দিত।

হাসপাতাল না থাকায় এখানকার বাসিন্দাদের অনেক সমস্যার মুখোমুখি হতে হতো, যেকোনো চিকিৎসার জন্য রোগীদের জেলা হাসপাতাল বা শ্রীনগরে নিয়ে যেতে হতো। গাতিপোড়ায় স্বাস্থ্যকেন্দ্রের নির্মাণকে জনকল্যাণে কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন আরেকটি উদ্যোগ হিসেবেই দেখছেন স্থানীয়রা।

সোফিয়ানের আরএন্ডবি জুনিয়র ইঞ্জিনিয়ার আবদুল রশিদ বলেন, ২০১৩ সালে স্বাস্থকেন্দ্রটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছিল। এখন প্রায় ৯০ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে। নতুন এই স্বাস্থ্যকেন্দ্র আশপাশের সব গ্রামসহ পুরো এলাকাটির অধিবাসীদের উপকারে আসবে। স্বাস্থ্যসেবা পেতে এখানকার মানুষকে অনেক দূরে যেতে হতো। যত দ্রুত সম্ভব আমরা স্বাস্থ্যকেন্দ্রের নির্মাণ কাজ শেষ করার চেষ্টা করছি।

তিনি বলেন, যদিও স্বাস্থ্য কেন্দ্রটির নির্মালণ কাজ বেশ কয়েক বছর আগেই শুরু হয়েছিল কিন্তু পূর্ববর্তী সরকার এর কাজ বন্ধ রেখেছিল, যে কারণে স্থানীয়দের স্বাস্থ্যসেবার সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়। কিন্তু জম্মু ও কাশ্মীর কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হওয়ার পরে স্বাস্থ্যকেন্দ্রটির নির্মাণ কাজ আবার শুরু হয়েছে। এখন পুরোদমে নির্মাণ কাজ চলছে, খুব শিগগিরই নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে।

নতুন স্বাস্থ্যকেন্দ্রটির নির্মাণ ব্যয় ১.৯০ কোটি রুপি। কাশ্মীর উপত্যকার রোডস অ্যান্ড ব্রিজ (আরএন্ডবি) বিভাগ স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি নির্মাণ করছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৭, ২০২০
এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa