ঢাকা, শুক্রবার, ৮ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৩ জুলাই ২০২১, ১২ জিলহজ ১৪৪২

আন্তর্জাতিক

রাখাইনে যুদ্ধাপরাধের বিচারে আরও সময় প্রয়োজন: সু চি 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০১৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২০
রাখাইনে যুদ্ধাপরাধের বিচারে আরও সময় প্রয়োজন: সু চি 

রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো যুদ্ধাপরাধের বিচার নিশ্চিত করতে মিয়ানমারের আরও সময় প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন দেশটির স্টেট কাউন্সেলর অং সাং সু চি।  

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) রোহিঙ্গা ইস্যুতে সু চি এ কথা বলেন।  

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে মিয়ানমারের বিচার ব্যবস্থার ওপর শ্রদ্ধা রাখার আহ্বান জানিয়ে সু চি বলেন, সেনাবাহিনীর বিচার প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়েই ২০১৭ সালে রাখাইনে অভিযানকালে সেনাদের সংঘটিত যুদ্ধাপরাধের বিচার করা হবে।

  
 
‘আমাদের উচিৎ এই বিচার প্রক্রিয়ার ব্যাপারে শ্রদ্ধাশীল থাকা, এবং অযৌক্তিক দাবি না তোলা। ’

সু চি এও বলেন, বিশ্বের আর সব দেশের সশস্ত্র বাহিনীর মতো মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কাছেও নিজ সদস্যদের দায়বয়দ্ধতার ব্যাপারটিকে নিশ্চিত করা কঠিন।  

পড়ুন>>গণহত্যা থামিয়ে রোহিঙ্গাদের সুরক্ষা দেওয়ার নির্দেশ আইসিজের

এরপরপরই আন্তর্জাতিক মহলের উদ্দেশ্যে দুঃখ প্রকাশ করে সু চি বলেন, মিয়ানমারের বিরুদ্ধে বেশিরভাগ অভিযোগই বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের মুখ থেকে শোনা। মিয়ানমার সরকারের প্রতিষ্ঠিত স্বাধীন তদন্ত কমিশন আইসিওই ওইসব অভিযোগকে অতিরঞ্জিত বলে অভিহিত করেছে।  

২০১৭ সালে রাখাইনে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ব্যাপারে তদন্তের জন্য ফিলিপাইনের কূটনীতিক রোজারিও মানালো ও জাপানি দূত কেনজো ওশিমার নেতৃত্বে আইসিওই গঠন করা হয়।  

গত সোমবার (২০ জানুয়ারি) ওই প্যানেল প্রতিবেদনে জানায় যে, রাখাইনে সেনা অভিযানকালে যুদ্ধাপরাধের প্রমাণ পাওয়া গেছে, তবে গণহত্যা সংশ্লিষ্ট প্রমাণ মেলেনি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯১১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০২০ 
এইচজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa