bangla news

৩৯ বিদেশির মৃত্যু: ‘হত্যাকারী’ ২ ভাইকে খুঁজছে পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-৩০ ১০:৩১:০৮ এএম
ক্রিস্টোফার ও রোনান হিউজ। ছবি: সংগৃহীত

ক্রিস্টোফার ও রোনান হিউজ। ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাজ্যের এসেক্সে লরিতে পাওয়া ৩৯ জনের হত্যাকারী সন্দেহে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের দুই ভাইকে খুঁজছে পুলিশ। রোনান হিউজ (৪০) ও তার ভাই ক্রিস্টোফারকে (৩৪) ধরিয়ে দিতে জনসাধারণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা।

মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম মেট্রো জানায়, আরমাঘের বাসিন্দা ওই দুই ভাই মানবপাচার ও নরহত্যার ঘটনায় জড়িত বলে ধারণা করছে এসেক্স পুলিশ। 

এ ঘটনায় তদন্ত দলের প্রধান ডিটেকটিভ চিফ সুপারিনটেনডেন্ট স্টুয়ার্ট হপার বলেন, এই মুহূর্তে হিউজ ভাইদের খুঁজে তাদের সঙ্গে কথা বলা তদন্তের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের বিশ্বাস তারা নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডই রয়েছে। আবার আয়ারল্যান্ডেও তাদের যোগসূত্র থাকতে পারে। আপনারা যদি জানেন তারা কোথায় রয়েছে বা তাদের অবস্থান সম্পর্কে যেকোনো তথ্য পেলে আমার দলকে খবর দেন।

গত বুধবার (২৩ অক্টোবর) মধ্যরাতে ওয়াটারগ্লেড ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক এলাকায় একটি লরির কন্টেইনার থেকে ৩৮ জন প্রাপ্তবয়স্ক ও একজন কিশোর বয়সীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। কন্টেইনারের ভেতর তাপমাত্রা মাইনাস ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

প্রথমে মৃত ৩৯ জনই চীনের নাগরিক বলে খবর বেরিয়েছিল। কিন্তু, পরে তাদের মধ্যে ভিয়েতনামের কিছু মানুষ থাকতে পারেন বলে দাবি উঠেছে। 

পুলিশ জানিয়েছে, লরির মূল অংশ নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড থেকে এসে পারফ্লিট থেকে কন্টেইনারটি তুলেছিল। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে লরির চালক মো রবিনসনকে (২৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এছাড়া এ ঘটনায় গ্রেফতার আরও তিনজন আপাতত জামিনে মুক্ত রয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১০৩০ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩০, ২০১৯
একে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-10-30 10:31:08