ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ অক্টোবর ২০১৯
bangla news

স্বামী লেখাপড়ায় বেশি ব্যস্ত, বিচ্ছেদ চান নববধূ!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-৩১ ৬:৪৭:১২ পিএম
স্বামী লেখাপড়ায় বেশি ব্যস্ত, বিচ্ছেদ চান নববধূ

স্বামী লেখাপড়ায় বেশি ব্যস্ত, বিচ্ছেদ চান নববধূ

বিয়ে হয়েছে কয়েক মাস, কিন্তু স্ত্রীকে ঠিকমতো সময় দিচ্ছেন না স্বামী। সরকারি চাকরির আশায় প্রতিমাসেই কোনো না কোনো পরীক্ষা লেগেই থাকে তার। শেষ পর্যন্ত রাগে-অভিমানে বিয়ে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্তই নিয়ে বসলেন নববধূ।

সম্প্রতি এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশে। ঘটনাটি রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে।

নববধূর অভিযোগ, স্বামী তাকে অবহেলা করছেন। বিয়ের পর থেকেই তিনি ঠিকমতো সময় দেননি। শুধু সরকারি চাকরির জন্য কোচিং নিয়ে ব্যস্ত থাকেন।

জোর করে হয়তো বিয়ে করানো হয়েছিল তার স্বামীকে। এজন্য পড়াশোনার বাহানা দেখিয়ে তার থেকে দূরে থাকছেন বলে ধারণা স্ত্রীর।

সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য অবশেষে এ দম্পতি হাজির হন স্থানীয় কাউন্সিলর নূরান্নিসা খানের কাছে। তিনি জানান, ডিস্ট্রিক্ট লিগ্যাল সার্ভিস অথরিটির সাহায্য নিয়ে দু’জনের কাউন্সেলিং শুরু করেছেন তিনি।

জানা যায়, ওই নারীর স্বামী পিএইচডি করেছেন। তারপরও সরকারি চাকরির জন্য মরিয়া তিনি। কাউন্সেলিংয়ের প্রথম পর্যায়ে চাকরি ও পড়াশোনা ছাড়া আর কোনোও কথা বলেননি এ ব্যক্তি। স্ত্রীর প্রতি কোনো দায়বদ্ধতাও নেই। নানা কারণে মানসিকভাবে বেশ বিপর্যস্ত তিনি। এ কারণে ওই নারী তার স্বামীকে ছেড়ে চলে যান। পরে তাকে বিয়ে বিচ্ছেদের মামলা নিষ্পত্তির জন্য বলা হয়।

কাউন্সিলর আরও জানান, তাদের দু’জনকেই মেডিটেশন করার জন্য বলা হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে, তাদের ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০০ ঘণ্টা, আগস্ট ৩১, ২০১৯
এএটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-31 18:47:12