bangla news

সৈকতের ‘বালু চুরির’ অভিযোগে পর্যটক কারাগারে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-২২ ১০:০৩:০৮ পিএম
 সমুদ্র সৈকত। ছবি: সংগৃহীত 

সমুদ্র সৈকত। ছবি: সংগৃহীত 

সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে গিয়ে বেশির ভাগ পর্যটকই শখের বশে শামুক বা ঝিনুক কুড়ান। স্মারক হিসেবে কেউ হয়তোবা সংগ্রহে রাখেন সৈকতের কিছু বালু। এমনটা হরহামেশাই ঘটে। আর সাধারণত একে অপরাধ হিসেবেও দেখা হয় না। 

কিন্তু সম্প্রতি ইতালির এক সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে গিয়ে বোতলে করে নামমাত্র বালু সংগ্রহ করায় বিশাল বিপত্তিতে পড়েছেন এক ফরাসি দম্পতি। এ ঘটনায় এখন তারা ‘চুরির’ অভিযোগে এক থেকে ছয় বছরের কারাদণ্ডের মুখোমুখি। 

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, গত সপ্তাহে ইতালির সারাদিনিয়া দ্বীপের সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে যান এক ফরাসি সম্পতি। সে সময় স্মারক হিসেবে ১৪টি প্লাস্টিকের বোতলে ৯০ পাউন্ডের মতো হোয়াইট স্যান্ড (বালু) সংগ্রহ করেন তারা। কিন্তু বেচারিরা ভাবতেও পারেননি যে, এর জন্য তাদের কারাবাসের মুখোমুখি হতে হবে। 

ফরাসি পত্রিকা করিয়েরে দেলা সেরা জানায়, বালুভর্তি বোতলগুলো নিজেদের ট্রাঙ্কে নিয়ে ফিরতি পথের ফেরিতে ওঠেন ওই পর্যটকরা। সেখানেই নিয়মিত তল্লাশিকালে বালুসহ গ্রেফতার করা হয় ওই দম্পতিকে। 
পরবর্তীতে বালু চুরির অভিযোগে তাদের ইতালির সাসারি শহরের আদালতে নেওয়া হয়। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাদের এক থেকে ছয় বছরের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। এছাড়া তিন হাজার ইউরোর মতো জরিমানাও গুণতে হতে পারে। 

সারিদিয়ানার ওই হোয়াইট স্যান্ড সৈকতে বালু ও পাথর চুরি নিত্যদিনের ঘটনা। অনেক পর্যটকই এসব সংগ্রহ করে অনলাইনে কালো বাজারিদের কাছে বিক্রি করেন। চুরি ঠেকাতেই ২০১৭ সালে এটিকে অপরাধ হিসেবে গণ্য করে আইন পাস করে ইতালি। প্রায়ই ওই অঞ্চলের বিমানবন্দর থেকে বালু চোরদের গ্রেফতার করা হয়। এসব না জানাতেই বিপত্তিতে পড়তে হয় ওই ফরাসি দম্পতিকে। 

বাংলাদেশ সময়: ২২০০ ঘণ্টা, আগস্ট ২২, ২০১৯ 
এইচজে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-08-22 22:03:08