ঢাকা, শুক্রবার, ৭ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ আগস্ট ২০১৯
bangla news

হাসপাতালের মধ্যেই ঝাড়-ফুঁক!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৭-১৭ ১২:৩৬:০৭ পিএম
হাসপাতালের মধ্যেই চলছে ওঝার ঝাড়-ফুঁক। ছবি: সংগৃহীত

হাসপাতালের মধ্যেই চলছে ওঝার ঝাড়-ফুঁক। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: সাপে কাটা এক রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করেছিলেন স্বজনরা। তবে, কোনো কারণে চিকিৎসকদের ওপর ভরসা করতে পারেননি তারা। সুযোগ বুঝে এক ওঝাকেও ডেকে নিয়ে আসা হয়। এরপর, হাসপাতালের নারী ওয়ার্ডের মধ্যেই শুরু হয় অদ্ভুত নিয়মে ঝাড়-ফুঁক। হাসপাতালের সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে এর পুরো ঘটনা। অভিযোগ উঠেছে, এক নার্স বিষয়টি দেখলেও, তা থামানোর কোনো চেষ্টাই করেননি।

সম্প্রতি ভারতের মধ্য প্রদেশের দামোহ জেলার একটি হাসপাতালে ঘটেছে এ ঘটনা। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, ইমাত্রি দেবী নামে বাতিয়াগড়ের এক বাসিন্দা সাপের কাপড়ে আহত হয়ে সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। ওই রাতেই ২৫ বছর বয়সী ওই নারীর স্বজনরা এক ওঝাকে হাসপাতালে ডেকে নিয়ে আসেন। অভিযোগ উঠেছে, রোগীকে এসময় ঝাড়-ফুঁকের নামে পুরুষ ওয়ার্ডের বাইরে নিয়ে অর্ধনগ্ন করে লাঞ্ছিত করা হয়।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, এ বিষয়টি দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক ও নিরাপত্তা কর্মীরা জানতেন না। তবে, এক নার্স ঘটনাটি দেখলেও কাউকে জানাননি। এ বিষয়ে তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন মমতা তিমোরি। 

হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক জানান, সেসময় তিনি অন্য ওয়ার্ডে রোগী দেখছিলেন। তার মতে, রোগী ও স্বজনদের কুসংস্কারের কারণেই এ ঘটনা ঘটেছে।

হাসপাতালের সিসি ক্যামেরায় পুরো ঘটনা দেখা গেলেও, এসময় কোনো নিরাপত্তা কর্মী এগিয়ে যাননি কেন, এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৫ ঘণ্টা, জুলাই ১৭, ২০১৯
একে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-07-17 12:36:07