bangla news

মোদীর ৫ বছর ‘সুপার ইমারজেন্সি’

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২৫ ২:৫৪:৫৫ পিএম
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: সংগৃহীত

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: বিজেপি নেতা নরেন্দ্র মোদীর শাসনামলে গত পাঁচ বছর ধরে ভারতজুড়ে ‘সুপার ইমারজেন্সি’ অর্থাৎ অতিরিক্ত জরুরি অবস্থা জারি রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি, গণতন্ত্র রক্ষায় অতীত থেকে শিক্ষা নিতে দেশের জনগণের উদ্দেশে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

১৯৭৫ সালের ২৫ জুন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী ভারতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছিলেন। সেসময় টানা ২১ মাস এ অবস্থা বিদ্যমান ছিল।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) ওই দিনটির ৪৪ বছর পূর্তি উপলক্ষে এক টুইট বার্তায় তৃণমূল সভানেত্রী বলেন, আজ ১৯৭৫ সালে জরুরি অবস্থা ঘোষণার বর্ষপূর্তি। গত পাঁচ বছর ধরে দেশ ‘সুপার ইমারজেন্সির’ মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। আমাদের অবশ্যই অতীত থেকে শিক্ষা নিতে হবে ও গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো রক্ষায় লড়াই করতে হবে।

নরেন্দ্র মোদীর কট্টর সমালোচক বলে পরিচিত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গত ৩০ মে প্রধানমন্ত্রীর শপথ অনুষ্ঠান বর্জন করেন। এরপর, গত ১৫ জুন দেশের থিংক ট্যাঙ্ক ‘নিতি আয়োগ’ মিটিংয়েও যাননি তিনি। বরং, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পশ্চিমবঙ্গকে গুজরাট বানানোর চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ তুলেছেন মমতা। তৃণমূল নেত্রীর দাবি, গত নির্বাচনে ইভিএম দুর্নীতির খোঁজ করছেন বলে পশ্চিমবঙ্গে দাঙ্গা সৃষ্টির মাধ্যমে তার সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত কেন্দ্রীয় সরকার।

২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বিজেপি-তৃণমূল দ্বন্দ্ব ক্রমেই প্রকট হয়ে উঠছে। কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে আইন-শৃঙ্খলার চরম অবনতি হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছে। সম্প্রতি, বিজেপি নেতা মুকুল রায় রাজ্যের অরাজকতা ও বিশৃঙ্খলা দমনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে কঠোর ব্যবস্থা নিতে লিখিত অনুরোধ জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৪ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০১৯
একে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-06-25 14:54:55