ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৮ জুলাই ২০১৯
bangla news

১ বছরে ৩৩ মিলিয়ন সাইবার হামলা ঠেকিয়েছে ইরান!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-২৪ ৫:৪৮:১৪ পিএম
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ঢাকা: সাইবার হামলা চালিয়ে ইরানের সমরাস্ত্র-ব্যবস্থা অচল করে দেওয়ার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের দাবি প্রত্যাখান করেছে তেহরান। তারা জানিয়েছে, ইরানের সমরাস্ত্র-ব্যবস্থা হ্যাক করতে এক বছরে প্রায় ৩৩ মিলিয়ন (৩ কোটি ৩০ লাখ) সাইবার হামলা চালানো হয়েছে। প্রতিবারই সফলতার সঙ্গে তা প্রতিরোধ করেছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি।

গত বৃহস্পতিবার (২০ জুন) হরমুজ প্রণালির কাছে যুক্তরাষ্ট্রের একটি গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করে ইরান। তেহরান জানায়, ইরানের আকাশসীমা লঙ্ঘন করায় ড্রোনটি ভূপাতিত করা হয়। তবে যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, ড্রোনটি আন্তর্জাতিক জলসীমার ওপরেই ছিল। সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ড্রোনটির মূল্য ছিল ১০০ মিলিয়ন ডলারের (১০ কোটি টাকা) বেশি। 

এর জবাবে ইরানের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুমকি দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জানা যায়, প্রথমে সামরিক হামলার অনুমতি দিলেও পরে তা প্রত্যাহার করেন তিনি। তবে, একেবারে থামেননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ইরানের ওপর কড়া নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। 

এর মধ্যেই জানা গেছে, ড্রোন ভূপাতিত হওয়ার দিনই ইরানের সমরাস্ত্র-ব্যবস্থায় হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। এ বিষয়ে পেন্টাগন বা হোয়াইট হাউজ আনুষ্ঠানিক বিবৃতি না দিলেও, দেশটির সংবাদমাধ্যমের দাবি, যুক্তরাষ্ট্রের সাইবার কমান্ড ও সেন্ট্রাল কমান্ড যৌথভাবে এ হামলা চালিয়েছে। এতে ইরানের ক্ষেপণান্ত্র নিয়ন্ত্রণসহ গোটা সমরাস্ত্র-ব্যবস্থাই অচল করে দেওয়া হয়েছে। 

তবে, এ দাবি অস্বীকার করেছেন ইরানের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রী জাভেদ আজারি-জাহরোমি।

তিনি বলেন, এ ধরনের সাইবার হামলা মোকাবিলায় ইরানের প্রচুর অভিজ্ঞতা আছে। গত বছর প্রায় ৩৩ মিলিয়ন সাইবার হামলা সফলভাবে প্রতিরোধ করা হয়েছে।

এসময় তিনি যুক্তরাষ্ট্র-ইসরায়েলের তৈরি ‘স্টাক্সনেট’ নামে একটি কম্পিউটার ভাইরাসের কথা উল্লেখ করেন। এটি দিয়ে ২০০৯-১০ সালে ইরানের পারমাণবিক স্থাপনা নেটওয়ার্কে হামলা চালানো হয়েছিল।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৫ ঘণ্টা, জুন ২৪, ২০১৯
একে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-24 17:48:14