bangla news

আতশবাজি নিয়ে খেলতে গিয়ে ঢামেকে শিশু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৭ ৭:৫৯:৫৮ এএম
আক্রমণের শিকার হওয়া আলম-ছবি: সংগৃহীত

আক্রমণের শিকার হওয়া আলম-ছবি: সংগৃহীত

শরীয়তপুর: শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলায় আতশবাজি নিয়ে খেলতে গিয়ে মাফরান (৮) নামে এক শিশুর পেট থেকে নাড়িভুড়ি বেরিয়ে গেছে। এতে মহিউদ্দিন (১০) নামে আরেক শিশুর আহত হয়েছে।

রোববার (২৬ মে) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার সখিপুরের মল্লিককান্দী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত মাফরান ওই গ্রামের মিলন শেখের ও মহিউদ্দিন একই গ্রামের ওমর আলী সরদারের ছেলে।

সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনামুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে বলেন, মাফরান ও মহিউদ্দিনসহ এলাকার আরও কয়েকজন শিশু মিলে বাড়ির পাশের সড়কে আতশবাজি ফুটিয়ে খেলা করছিল। তারা দিশলাই কাঠির বারুদ, ভাঙা কাঁচের টুকরো, ইটের কনা ও তার কাটা ইত্যাদি লোহার পাইপের মধ্যে ঢুকিয়ে তার মধ্যে একটা কিছু দিয়ে আঘাত করলে বিকট শব্দ হয়। এতে শিশুরা আনন্দ পায়। এভাবে আতশবাজি ফুটাতে গিয়ে কিছু একটা শিশু মাফরানের পেটের মধ্যে ঢুকে গেলে তার পেট থেকে ভুড়ি বেরিয়ে আসে। এ সময় শিশু মহিউদ্দিনের পায়ে আঘাত লাগে। শিশু মাফরানকে উদ্ধার করে তার স্বজনরা শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠান। শিশু মহিউদ্দিনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯২৩ ঘণ্টা, মে ২৭, ২০১৯
এএটি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল শরীয়তপুর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-27 07:59:58