ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ জুন ২০১৯
bangla news

জাপানি প্রধানমন্ত্রীর নাম নিয়ে বিড়ম্বনা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২২ ৮:৩৮:২৪ পিএম
শিনজো আবে। ছবি: সংগৃহীত

শিনজো আবে। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: সারাবিশ্বেই জাপানের প্রধানমন্ত্রীর নাম লেখা হচ্ছে শিনজো আবে। তবে এতে ঘোর আপত্তি জানিয়েছে দেশটি। বিশ্ববাসীর উদ্দেশে জাপানিদের বিনীত অনুরোধ, আমাদের প্রধানমন্ত্রীর নাম ঠিকভাবে ব্যবহার করুন। তার নাম শিনজো আবে নয়, আবে শিনজো।

জাপানের ঐতিহ্য অনুসারে পারিবারিক নাম আগে, বাকি অংশ পরে উচ্চারিত হয়। চীন ও কোরিয়াতেও আছে একই রীতি। কিন্তু, প্রায় দেড়শ’ বছর ধরে ইংরেজিতে জাপানিদের নাম লেখা হচ্ছে উল্টো করে। 

বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলার উদ্দেশ্যে মেইজি যুগে শুরু এ ধারা পরবর্তীতে সবখানেই ব্যবহৃত হতে থাকে। যদিও কিছু কিছু ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম যে নেই, তা নয়। বিখ্যাত অনেকের ক্ষেত্রেই পারিবারিক নাম আগে লেখা হয়।

গত ১ মে থেকে শুরু হওয়া নতুন রেইওয়া যুগে আর এ ‘ভুল’ করতে চায় না জাপান। এবার স্থায়ীভাবেই এর সমাধানের উদ্যোগ নিয়েছে দেশটির সরকার। 

মঙ্গলবার (২১ মে) জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তারো কোনো বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, আমরা আশা করি, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জা ইনের নাম যে রীতিতে লেখা হয়, এখন থেকে জাপানের প্রধানমন্ত্রীর নামও সেভাবেই আবে শিনজো লেখা হবে। এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় অনুরোধ জানানোর পরিকল্পনা আছে।

এসময় তিনি ২০ বছর আগের একটি ঘটনা উল্লেখ করে জানান, সে সময় ন্যাশনাল ল্যাংগুয়েজ কাউন্সিল জাপানি নামের ইংরেজি রীতি চালু করার উদ্যোগ নিয়েছিল। কিন্তু তখন আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়, এমনকি জাপানিরাই এ রীতি মানেননি। তারা আগের মতো পারিবারিক নাম পরেই লিখতেন। তবে, নতুন যুগে এ ধারার পরিবর্তন হবে বলে আশা করছে কর্তৃপক্ষ। 

বর্তমানে জাপানি নামের ক্ষেত্রে সংবাদ সংস্থা অ্যাসোসিয়েটেড প্রেসের (এপি) আলাদা কোনো রীতি নেই। তারা জাপানের প্রধানমন্ত্রীর নাম শিনজো আবেই লেখে। 

শিকাগো ম্যানুয়েলেও বলা হয়েছে, যদি কোনো (জাপানি) নাম পশ্চিমা পদ্ধতিতে লেখা হয়, তবে পারিবারিক নাম পরে আসবে।

উইকিপিডিয়াতে শিনজো আবের নাম বদলে আবে শিনজো করার দাবি জানানো হয়েছে। সেখানে শিনজো আবের পেজে আলোচনা বক্সে এক আবেদনকারী লিখেছেন, সরকারের ঘোষণা অনুসারে উইকিপিডিয়ায় জাপানের প্রধানমন্ত্রীর নাম পরিবর্তন করা উচিৎ।

তবে এতে আপত্তি জানিয়েছেন অনেকেই। একজন লিখেছেন, উইকিপিডিয়া সরকারের আদেশ মানতে বাধ্য নয়। আমাদের নিজস্ব ভাবধারা আছে… এবং আমরা নামের ক্ষেত্রে ইংরেজি ফর্মই ব্যবহার করবো।

তিনি আরও লিখেছেন, যদি বেশিরভাগ সূত্র জাপানের প্রধানমন্ত্রীর নাম আবে শিনজো লেখে, তাহলে উইকিপিডিয়াও সেটাই অনুসরণ করবে। তবে সেটা আসলেই ঘটবে কি-না, তা এখনই বলা যায় না।

নাম পরিবর্তনের এ যুদ্ধে(!) টোকিও যদি সত্যিই হেরে যায়, তাহলে এ নিয়ে বেশ ঝামেলায় পড়তে পারে তারা।

শনিবার (২৫ মে) জাপান সফরে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আগামী মাসের জি-২০ সম্মেলনের আয়োজক জাপান। সেপ্টেম্বরে রাগবি বিশ্বকাপ ও পরের বছর গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকও অনুষ্ঠিত হবে জাপানে। 

এসব অনুষ্ঠানে শিনজো আবে নাকি আবে শিনজোকে উপস্থিত করবে বিশ্বমিডিয়া, তা সময়ই বলে দেবে!

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৭ ঘণ্টা, মে ২২, ২০১৯
একে

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-22 20:38:24