bangla news

জেসিন্ডা আর্ডার্নকে হত্যার হুমকি, তদন্তে পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-২২ ২:২৬:৫০ পিএম
জেসিন্ডা আর্ডার্ন

জেসিন্ডা আর্ডার্ন

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডার্নকে হত্যার হুমকি দিয়ে সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট দেওয়া হয়েছে। যার তদন্ত করছে পুলিশ।

এ বিষয়ে প্রকাশিত এক সংবাদে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, জেসিন্ডা আর্ডার্নকে একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে বন্দুকের ছবি পাঠানো হয়েছে, যার ক্যাপশনে লেখা রয়েছে ‘ইউ আর নেক্সট’। 

তবে তদন্তের কাজে পুলিশ সংশ্লিষ্ট অ্যাকাউন্টটি বন্ধ করে দিয়েছে। পুলিশ বলছে, বন্ধ করার অন্তত ৪৮ ঘণ্টা আগে অ্যাকাউন্টটি থেকে ওই পোস্ট দেওয়া হয়।

এদিকে ‘ইউ আর নেক্সট’ লেখা আরেকটি পোস্টে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও দেশটির পুলিশকে ট্যাগ করা হয়েছে। আর বন্ধ করে দেওয়া পোস্টে ইসলামবিরোধী উপাদান ও শ্বেতাঙ্গ আধিপত্যের পক্ষপাতিত্ব করে ঘৃণামূলক বক্তব্য দেওয়া হয়েছে।

স্থানীয় এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বিষয়টি তারা অবগত হয়ে এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছেন। আর টুইটারে এ ধরনের ‘হুমকি’ দেওয়া নিয়মবিরোধী বলে জানিয়েছেন মাইক্রোব্লগিং সামাজিক মাধ্যমটির এক মুখপাত্র।

গত ১৫ মার্চ জুমার নামাজের সময় ক্রাইস্টচার্চের আল-নূরসহ ওই দুই মসজিদে স্বয়ংক্রিয় রাইফেল নিয়ে বর্বরোচিত কায়দায় গুলি চালাতে থাকে শ্বেতাঙ্গ বর্ণবাদী উগ্রবাদী ব্রেন্টন ট্যারেন্ট (২৮)। অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভূত এই বর্ণবাদীর গুলিতে নারী-শিশুসহ ৫০ জন নিহত হন। পরে ট্যারেন্টকে গ্রেফতার করা হয়।

নজিরবিহীন এ হামলার পর শোকে মুষড়ে পড়ে নিউজিল্যান্ড। বৃহস্পতিবারই (২১ মার্চ) প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা জানান, হামলায় যে ধরনের অস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে, সেরকমসহ সব সামরিক স্টাইলের আধা স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র জনসাধারণের জন্য নিষিদ্ধ হবে নিউজিল্যান্ড।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৫ ঘণ্টা, মার্চ ২২, ২০১৯
জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   ক্রাইস্টচার্চ মসজিদ হামলা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-03-22 14:26:50