ঢাকা, সোমবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২০ মে ২০১৯
bangla news

নিউজিল্যান্ডে ইন্টারনেট জায়ান্টদের ডিজিটাল ট্যাক্স

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-১৮ ৬:২৮:০৪ পিএম
নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন, ছবি: সংগৃহীত

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন, ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: নিউজিল্যান্ডে ইন্টারনেট জায়ান্ট কোম্পানি গুগল, ফেসবুক এবং আমাজনের রাজস্ব করের হার বৃদ্ধি করা হবে।

সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দেশটির কর্তৃপক্ষ জানায়, তারা দেশে প্রচলিত আইনের সংশোধন করছে। যাতে করে এসব জায়ান্ট কোম্পানি থেকে ন্যায্য কর আদায় করা হয়।

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন বলেন, কোম্পানিগুলো যাতে ন্যায্য অংশ পরিশোধ করে, তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে দেশে ‘কর আইন’ সংশোধনের ব্যাপারে মন্ত্রিসভার সদস্যরা একমত হয়েছেন।

মন্ত্রিসভার সম্মেলন শেষে আরডার্ন বলেন, আমাদের বর্তমান কর ব্যবস্থা একক ব্যক্তির ক্ষেত্রে যেভাবে প্রয়োগ হয়, মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানির ক্ষেত্রে সেভাবে হয় না। এই তারতম্য দূর করা প্রয়োজন।

দেশটির সরকারের দেওয়া বিবৃতিত বলা হয়েছে, সামাজিক মিডিয়া নেটওয়ার্ক, ট্রেডিং প্ল্যাটফর্ম এবং অনলাইন বিজ্ঞাপন সরবরাহকারী কোম্পানিগুলো বর্তমানে নিউজিল্যান্ড থেকে বিপুল পরিমাণে আয় করলেও, আয়কর দেওয়ার সুবিধা কম।

নিউজিল্যান্ডে ডিজিটাল সেবার আন্তঃসীমান্ত বাজেট প্রায় ১.৮৬ বিলিয়ন ডলার।

বিবৃতিতে দেশটির অর্থমন্ত্রী গ্র্যান্ট রবার্টসন বলেছেন, এসব ডিজিটাল সেবার জন্য নির্ধারিত রাজস্ব কর নিউজিল্যান্ড ডলারের ৩০ মিলিয়ন থেকে ৮০ মিলিয়ন হবে।

দেশটিতে বর্তমানে মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিগুলোর জন্য ডিজিটাল সার্ভিস ট্যাক্সের (ডিএসটি) নিয়ম অনুযায়ী মোট রাজস্বের ওপর ২ থেকে ৩ শতাংশ কর পরিশোধের আইন করা হবে।
 
যুক্তরাজ্য, স্পেন, ইতালি, ফ্রান্স, অস্ট্রিয়া, ভারতসহ বেশ কয়েকটি দেশে  ইতোমধ্যে ডিএসটি আইন প্রণয়ন করেছে। পাশাপাশি ইইউ এবং অস্ট্রেলিয়াও ডিএসটি’র ব্যাপারে ভাবছে।

বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শেষে আসছে মে-তে বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ। 

বাংলাদেশ সময়: ১৬২০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১৯
এসএ/টিএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db