ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ২৪ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

থাই রাজকুমারীর মনোনয়ন বাতিল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-১১ ৪:১৩:৩৯ পিএম
থাইল্যান্ডের রাজকুমারী উবলরত্না রাজকন্যা সিরিবধনা। ছবি: সংগৃহীত

থাইল্যান্ডের রাজকুমারী উবলরত্না রাজকন্যা সিরিবধনা। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী হওয়া হলো না থাইল্যান্ডের রাজকুমারী উবলরত্না রাজকন্যা সিরিবধনার (৬৭)। সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দেশটির নির্বাচন কমিশন তার মনোনয়নপত্রটি বাতিল করে দেয়।

দেশটির বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, সোমবার নির্বাচন কমিশন থাইল্যান্ডের জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণেচ্ছুক রাজনৈতিক দলগুলোর প্রধানমন্ত্রী পদে প্রার্থীদের তালিকা প্রকাশ করে। এতে দেখা যায় রাজকুমারী উবলরত্নার নাম নেই। উবলরত্না দেশটির বর্তমান রাজা  প্রিন্স মাহা ওয়াজিরালংকর্ণের বোন। 

পড়ুন>> প্রধানমন্ত্রী পদের দৌড়ে থাই রাজকুমারী

থাই নির্বাচন কমিশনের এক বার্তায় বলা হয়েছে, দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী- রাজপরিবারের সদস্যরা রাজনীতির ঊর্ধ্বে। একই সঙ্গে তারা কোনো রাজনৈতিক পদেও থাকতে পারেন না। 

দেশটির ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রার দল ‘থাই রাকসা চার্ট পার্টি’র সমর্থন নিয়ে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী পদের জন্য লড়তে চেয়েছিলেন রাজকুমারী উবলরত্না।  

গত শুক্রবার (০৮ ফেব্রুয়ারি) দলের পক্ষ থেকে তার নাম ঘোষণা করা হয়। যা থাইল্যান্ডের রাজনৈতিক ইতিহাসে প্রথম।  

এ ঘটনায় এক বার্তায় রাজা মাহা ভাজিরালংকর্ণ রাজকুমারীর প্রধানমন্ত্রিত্বের লড়াইয়ে নামার এ চেষ্টাকে ‘অনুচিত’ এবং অসাংবিধানিক বলে মন্তব্য করেন। 

আর রাজকুমারীকে মনোনয়ন দিয়ে নিষিদ্ধ হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রার রাজনৈতিক দল থাই রাকসা চার্ট পার্টি।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯
এমএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14