bangla news

জরুরি অবস্থা জারির হুমকি ট্রাম্পের 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-০৫ ৪:৩২:৫৩ পিএম
ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি: সংগৃহীত

ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য কংগ্রেসের অনুমোদন ছাড়াই জাতীয় জরুরি অবস্থা জারি করতে পারেন বলে হুমকি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।  

ডেমোক্রেটিক দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর স্থানীয় সময় শুক্রবার (০৫ জানুয়ারি) হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প এ হুমকি দেন। 

একই সঙ্গে অনির্দিষ্টকালের জন্য ফেডারেল সরকারের কাজকর্ম বন্ধ করে দেওয়ারও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। 

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, সংবাদ সম্মেলনের আগে হোয়াইট হাউসে ডেমোক্রেটিক দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন ট্রাম্প। সেখানেও বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন তিনি। যদিও ডেমোক্রেটিক নেতাদের কথার কোনো আমলে নেননি ট্রাম্প। 

তবে আলোচনায় ডেমোক্রেটিক নেতারা তাকে অনুরোধ করেন, দেয়ালের জন্য অর্থায়নের প্রশ্নটি তারা আলাদাভাবে আলাপ-আলোচনায় প্রস্তুত আছেন, কিন্তু সেই অজুহাতে সরকার বন্ধ রাখা অযৌক্তিক।

এরপরও সংবাদ সম্মেলনে ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেন, তাদের বৈঠক খুব ফলপ্রসু হয়েছে। তবে এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প প্রয়োজনে ফেডারেল সরকারের কাজকর্ম বছরের পর বছর ধরে বন্ধ রাখার হুমকি দেন।
 
তিনি বলেন, ‘আমি একদম তাই-ই বলেছি। এর জন্য আমি প্রস্তুত রয়েছি।’

‘তবে আমি যা করছি, এর জন্য আমি গর্বিত। আমি এটাকে কাজকর্ম বন্ধ বলি না, আমি এটাকে বলি, আমাদের দেশের স্বার্থ ও সুরক্ষার জন্য যা করা উচিৎ ঠিক তাই।’

অর্থ বরাদ্দের ব্যাপারে কংগ্রেসের অনুমোদন এড়াতে জরুরি ক্ষমতা প্রয়োগের কথা ভাবছেন কি-না? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের ব্যাপারে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি তা করতে পারি। আমরা জরুরি অবস্থা ঘোষণা করতে পারি এবং দ্রুত দেয়াল নির্মাণ করতে পারি। কাজটি করার জন্য এটা আলাদা একটি উপায়।’

এদিকে বৈঠকে ডেমোক্রেট দলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে ট্রাম্প প্রশাসনের ‘বাদানুবাদ’ হয়েছে বলে বিবিসির খবরে বলা হয়েছে। খবরে বলা হয়, বৈঠকের এক পর্যায়ে হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভের নবনির্বাচিত স্পিকার ডেমোক্রেটিক দলের ন্যান্সি পেলোসি ও সিনেটের সংখ্যালঘু নেতা চাক স্কুমার। 

পরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘আমরা প্রেসিডেন্টকে বলেছি, ফেডারেল সরকারের কাজকর্ম চালু করা উচিৎ। তিনি (ট্রাম্প) এতে বাধা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, তিনি দীর্ঘ সময় ধরে সরকারের কাজকর্ম বন্ধ রাখবেন। সেটা মাসের পর মাস, এমনকি বছরের পর বছর হতে পারে।’

যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণে বাজেট বরাদ্দ ইস্যুতে মতবিরোধের জের ধরে গত ২২ ডিসেম্বর থেকে ফেডারেল সরকারের একাংশের কাজকর্ম বন্ধ হয়ে গেছে। 

৮ লাখ ফেডারেল কর্মী গত ২২ ডিসেম্বর থেকে কোনো বেতন পাচ্ছেন না। মেক্সিকোর সঙ্গে ‘নিরাপত্তা’ দেয়াল নির্মাণের জন্য ট্রাম্পের দাবি অনুসারে ৫০০ কোটি মার্কিন ডলার দিতে ডেমোক্র্যাটদের আপত্তি রয়েছে। 

তবে ট্রাম্পও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, তার দাবি মতো অর্থ না দেওয়া পর্যন্ত তিনি কোনো বাজেট প্রস্তাবে সই করবেন না। তবে কম যান না ডেমোক্রেটরাও। ১৩০ কোটি ডলারের চেয়ে এক পয়সাও বেশি দিতে সম্মত না হওয়ার কথা জানিয়েছেন তারা।

হোয়াইট হাউস সূত্র বলছে, গত মাসেই ট্রাম্প জরুরি অবস্থা ঘোষণার বিষয়টি নিজের উপদেষ্টাদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। 

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৫, ২০১৯
এমএ/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   আন্তর্জাতিক
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-01-05 16:32:53