bangla news

সোমালি বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ৩১

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-০৮-২৪ ১২:৫৫:৩৭ এএম

মোগাদিসুতে সেনা পোশাকের কয়েকজন বন্দুকধারীর হামলায় আইনসভার সদস্যসহ অন্তত ৩১ জন নিহত হয়েছেন। প্রেসিডেন্টের বাসভবনের কাছে সরকার নিয়ন্ত্রিত এবং সরকারি কর্মকর্তাদের যাতায়াত আছে রাজধানীর এমন একটি হোটেলে মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে। তবে কেউ হামলার দায় স্বীকার করেনি।

মোগাদিসু: মোগাদিসুতে সেনা পোশাকের কয়েকজন বন্দুকধারীর হামলায় আইনসভার সদস্যসহ অন্তত ৩১ জন নিহত হয়েছেন।

প্রেসিডেন্টের বাসভবনের কাছে সরকার নিয়ন্ত্রিত এবং সরকারি কর্মকর্তাদের যাতায়াত আছে রাজধানীর এমন একটি হোটেলে মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে। তবে কেউ হামলার দায় স্বীকার করেনি।

বলে সরকার সূত্রে জানা গেছে, নিহতদের মধ্যে পার্লামেন্টের ৬ সদস্য ও সরকারের নিরাপত্তা বাহিনীর ৫ সদস্য আছেন।

এ ঘটনায় সংসদের ১৫ জন সদস্য নিহত হন বলে আইন সভার সদস্য মোহাম্মেদ হাসান আগে রয়টার্সকে বলেছিলেন।

হামলাকারীদের একজনকে আটক করা হয়েছে। আরো দু’জনের শরীর উড়ে গেছে বলেও মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়।

সরকারের নিরাপত্তা বাহিনীর অবিশ্বস্ত সূত্রে বলা হয়, ‘কিছু মন্ত্রী নিরাপত্তার জন্য তাদের কাছে বন্দুক রাখেন। নিরাপত্তা কর্মীরা পৌঁছানোর আগে সেগুলোর সাহায্যে তারা নিজেদের প্রতিরোধের চেষ্টা করছিলেন।’

হোটেলটি যে জায়গায় অবস্থিত সেখানে ৩ শ’রও বেশি সশস্ত্র আল শেবাব যোদ্ধার বসবাস বলে নিরাপত্তা বাহিনী সূত্রে জানা যায়।

তিনি বলেন, তারা সাধারণ নাগরিকের ছদ্মবেশে ছোট ব্যবসা, বিভিন্ন হোটেল ও দোকানে কাজ করে থাকে।

এছাড়া তারা মধ্য ও দক্ষিণ সোমলির বড় একটি এলাকা নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। একইসঙ্গে তাদের প্রয়োজনে তারা বিদেশি সেনাদের বড় একটি অংশকে নিজেদের দলে টানার চেষ্টা করে।
 
জঙ্গিবাদ শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ২১ হাজারেরও বেশি সোমালি নিহত হওয়াসহ এক লাখ পঁচিশ হাজার মানুষ গৃহহীন হয়। প্রায় ৫০ হাজার মানুষ অন্য দেশে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময়: ১৯৩০ ঘণ্টা, আগস্ট ২৪, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2010-08-24 00:55:37