ঢাকা, রবিবার, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২১ শাবান ১৪৪৫

আন্তর্জাতিক

গাজা ‘সবচেয়ে অন্ধকার সময়ের’ কাছাকাছি: ডব্লিউএইচও

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৬, ২০২৩
গাজা ‘সবচেয়ে অন্ধকার সময়ের’ কাছাকাছি: ডব্লিউএইচও

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) মঙ্গলবার বলেছে, গাজা উপত্যকার পরিস্থিতি প্রতিনিয়ত খারাপ হচ্ছে এবং মানবেতিহাসের ‘সবচেয়ে অন্ধকার সময়ের’ দিকে যাচ্ছে।  

অধিকৃত ফিলিস্তিনি অঞ্চলে ডব্লিউএইচওর প্রতিনিধি রিচার্ড পিপারকর্ন গাজার দক্ষিণ দিকের রাফাহ সীমান্ত থেকে ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে সাংবাদিকদের বলেন, মধ্য ও দক্ষিণ গাজা থেকে সরে যাওয়া লোকের সংখ্যা ‘বিশালভাবে বাড়ছে’।

তিনি বলেন, ঘণ্টায় ঘণ্টায় পরিস্থিতি আরও খারাপ হচ্ছে। দক্ষিণাঞ্চলসহ এখানে তীব্র বোমাবর্ষণ চলছে। আমরা মানবেতিহাসের  ‘সবচেয়ে অন্ধকার সময়ের’ কাছাকাছি।

তিনি আরও বলেন, এসব বোমা হামলা এবং প্রাণহানি শিগগিরই বন্ধ করতে হবে। আমাদের একটি স্থায়ী যুদ্ধবিরতি দরকার।  

গাজায় এখন হাসপাতালগুলোতে ১৪শ সিট রয়েছে। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, প্রয়োজন পাঁচ হাজার।  

রিচার্ড পিপারকর্ন বলেন, সংঘাতের শুরু তেহকে এ পর্যন্ত এক লাখ ২০ হাজার লোকের শ্বাসযন্ত্রের তীব্র সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। ২৬ হাজারের মতো লোকের স্ক্যাবিস ও উকুন সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। ৮৬ হাজার লোক ডায়রিয়ায় ভুগেছে। এর মধ্যে ৪৪ হাজারের বয়স পাচের নিচে।  

এক হাজার ১৫০ জনের জন্ডিস সংক্রমণ দেখা দিয়েছে। চিকেন পক্স, ত্বকের ফুসকুড়ি এবং মেনিনজাইটিসের মতো রোগও দেখা দিচ্ছে।  

৭ অক্টোবর থেকে ইসরায়েল গাজায় হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। মাঝখানে কদিন যুদ্ধবিরতি ছিল। এর পর থেকে আবারও হামলা চলছে। এ পর্যন্ত গাজায় ১৬ হাজার ২৪৮ ফিলিস্তিনির প্রাণ গেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫০৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৬, ২০২৩
আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।