bangla news

পশ্চিমবঙ্গে সিপিএমের সাবেক বিধায়ক খুন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-০৬-২৯ ১:০৮:০৭ পিএম

পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম জেলার বোলপুর ব্লকের নানুরে তুণমলকর্মীদের হাতে নিহত হয়েছেন সিপিএম-এর সাবেক বিধায়ক আনন্দ দাস।

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম জেলার বোলপুর ব্লকের নানুরে তুণমলকর্মীদের হাতে নিহত হয়েছেন সিপিএম-এর সাবেক বিধায়ক আনন্দ দাস।

এর প্রতিবাদে আজ বুধবার বোলপুর মহকুমায় বনধ কমৃসূচি পালন করছে সিপিএম।

জেলা পুলিশ জানিয়েছে, ‘স্থানীয় এক তৃণমুল কর্মীকে সিপিএমের কর্মীরা মারধোর করেছে এই অভিযোগে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় একদল সশস্ত্র তৃণমুল কর্মী নানুর বাসস্ট্যান্ডে সিপিএম জোনাল অফিসে হামলা চালায়। তারা জোনাল অফিসের সব আসবাবপত্র ভেঙে ফেলে।’

জোনাল অফিসের পাশে আনন্দ দাসের বাড়ি। তৃণমুল কর্মীরা তাকে বাড়ি থেকে ডেকে এনে রাস্তার ওপর গুলি করে। ঘটনাস্থলে গুলি খেয়ে পড়ে যান তিনি।

পরে আশেপাশের দোকানপাটে ভাঙচুর করে বোমা ফাটিয়ে চলে যায় তৃণমুল কর্মীরা। গুলিবিদ্ধ আনন্দ দাসকে কলকাতায় এসকেএম হাসপাতালে নেওয়া হলে তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক বিমান বসু অভিযোগ করেছেন, পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে আনন্দ দাসকে।

ছত্তিসগড়ে মাওবাদী হামলা মৃত ২৬ সিআরপিএফ জওয়ান

কলকাতা:গতকাল ভারতের ছত্তিসগড় রাজ্যে সিআরপিএফ ও মাওবাদীদের সংঘর্ষে ২৬ জওয়ান মারা গেছেন।

রাজ্য প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে,‘ ছত্তিসগড় রাজ্যের নারায়ণপুর জেলার ধাওয়ান থানা এলাকায় টহলরত ৭০ জন সিআরপিএফ জওয়ানদের ওপর আচমকা হামলা চালায় মাওবাদীদের একটি স্কোয়াড।’

এই হামলায় কিছু বুঝে ওঠার আগে ২৬ জন জওয়ান গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। ১৫ জন মারাত্বক ভাবে আহত হন। পাল্টা গুলি চালায় জওয়ানরা। কিছুক্ষণ গুলি চালিয়ে মাওবাদীরা পালিয়ে যায়।

ভারতীয় সময়:০১.২৪ঘন্টা,৩০জুন২০১0

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2010-06-29 13:08:07