ঢাকা, বুধবার, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ শাবান ১৪৪৫

আন্তর্জাতিক

উত্তরবিহীন কান্নার গল্প অনেক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৩
উত্তরবিহীন কান্নার গল্প অনেক

তুরস্কে শক্তিশালী ভূমিকম্পে বহু মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। ধ্বংসস্তূপের নিচে অনেকে চাপা পড়েছে।

উদ্ধারকাজ চলমান।

ধ্বংসস্তূপের মধ্যে কেউ বেঁচে রয়েছে কি না, তা অনুসন্ধানের চেয়ে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে হারানোর অনুভূতি।  

সিরিয়া-তুরস্ক সীমান্তের হাতায় প্রদেশ ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চলগুলোর মধ্যে অন্যতম। রাতে অনেকটা অন্ধকারের মধ্যেই এক বাসিন্দাকে দেখা যায় ধ্বংসস্তূপে কিছু খোঁজাখুঁজি করতে। তার বিশ্বাস, কেউ হয়তো বেঁচে আছেন। তিনি বলছিলেন, কেউ থাকলে জোরে সাড়া দাও।

তিনি বলেন, মরদেহ পড়ে আছে। একজন মারা গেছেন। কেউ তাকে সরায়নি। ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে একজন নারীর কণ্ঠ শোনা যাচ্ছে।

তিনি কথা বলছেন, আর ধ্বংসস্তূপের নিচ থেকে নারীকণ্ঠে কান্না ভেসে আসছে। তিনি কেঁদেই যাচ্ছেন, আর ধাতুতে আঘাতের মাধ্যমে শব্দ করে বাসিন্দার দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা করছেন।

তবে ওই বাসিন্দা একা কিছুই করতে পারছেন না। পুরো বাড়ি ভেঙে পড়ে ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। এই ধ্বংসাবশেষ সরাতে ভারী যন্ত্রাদির প্রয়োজন।  

এটি একটি উত্তরহীন কান্নার গল্প। এমন গল্প এই অঞ্চলে বারবার শোনা যাচ্ছে।  

সোমবার ভোরের দিকে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে। তুরস্কের পাশাপাশি সিরিয়াও পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০০৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৩
আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।