ঢাকা, শুক্রবার, ৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২৩ আগস্ট ২০১৯
bangla news

গাজায় অবরোধের প্রতিবাদে এবার ইহুদি মানবাধিকার কর্মীরা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-০৯-২৭ ৬:০২:৫৪ এএম

ফিলিস্তিনি ভূ-খণ্ডে অবরোধের প্রতিবাদে এবার ইসরায়েল, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের কয়েকজন ইহুদি মানবাধিকার কর্মী গাজার অভিমুখে নৌযান নিয়ে সাইপ্রাস ছেড়েছেন।

ফামাগুস্তা: ফিলিস্তিনি ভূ-খণ্ডে অবরোধের প্রতিবাদে এবার ইসরায়েল, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের কয়েকজন ইহুদি মানবাধিকার কর্মী গাজার অভিমুখে নৌযান নিয়ে সাইপ্রাস ছেড়েছেন।

রোববার তুরস্কের ফামাগুস্তা বন্দর থেকে আইরিন নামের ওই নৌযানটি আটজন মানবাধিকার কর্মীসহ রওনা হয়েছে।

নাৎসি হত্যাযজ্ঞ থেকে বেঁচে যাওয়া ৮২ বছর বয়সী রিউভেন মস্কোভিটস বার্তাসংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘যন্ত্রণা, নিপীড়ন ও আট লাখ শিশুসহ বহু লোককে কারারুদ্ধ করার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করা আমার পবিত্র দায়িত্ব।’

মস্কোভিটস, ‘ইসরায়েল রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা ছিলো বড় স্বপ্ন, আর এটি একটি বাস্তবতা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আমাদের এটা নিশ্চিত করতে হবে যে, এটা দুঃস্বপ্নে পরিণত হচ্ছে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি একজন ইহুদিবাদী। আমি এখনো বিশ্বাস করি এখানে থাকার অধিকার আমার আছে। তবে ১৫ লাখ মানুষের অধিকার চুরি করে ও তাদের ভূমি লুণ্ঠন করে এখানে থাকতে চাই না।’

ইসরায়েলের প্রতিরা বাহিনীর সাবেক বৈমানিক  ইয়োনাতান শাপিরা বলেন, তারা কোনো সংঘর্ষে যেতে চাচ্ছেন না। তিনি আরও বলেন, ‘আমরা কোনো সহিংসতা ও সংঘর্ষের পন্থায় যাচ্ছি না।’

শাপিরা বলেন, ‘তবে তারা যদি নৌযানটি থামিয়ে দেয়, আমরা অ্যাশদদ বন্দরে তা নিয়ে যেতে দেব না।’

মানবাধিকার কর্মী রিচার্ড কুপার বলেন, ‘গাজার অবরোধ ও ফিলিস্তিনি ভূ-খণ্ড দখলের বিরুদ্ধে গাজা অভিুমখী ইহুদি নৌযান একটি প্রতীকী প্রতিবাদ। এর মাধ্যমে ফিলিস্তিনি ও ইসরায়েলিদের যারা শান্তি ও ন্যায় প্রতিষ্ঠা করতে চায় তাদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশের বার্তাও এটি।’

একটি বিবৃতিতে তিনি এও বলেন, ‘ইসরায়েলি সরকারের নীতি সব ইহুদি সমর্থন করে না।’

গত মে মাসে গাজা অভিমুখি একটি নৌযানবহরের ওপর ইসরায়েলের সেনাবাহিনী হামলা চালায়। এ হামলায় তুরস্কের নয়জন মানবাধিকার কর্মী নিহত হয়েছে। আন্তর্জাতিক মহল থেকে এ ঘটনার তীব্র নিন্দাও জানানো হয়।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময়: ১৫৩৮ ঘণ্টা , সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2010-09-27 06:02:54