ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

তথ্যপ্রযুক্তি

কোরবানির পশু কেনাবেচায় প্রস্তুত ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস

শাওন সোলায়মান, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭০৮ ঘণ্টা, জুলাই ২, ২০২১
কোরবানির পশু কেনাবেচায় প্রস্তুত ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস

ঢাকা: আসন্ন ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে কোরবানির পশু কেনাবেচায় প্রস্তুত হচ্ছে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মগুলো। কোরবানির পশু কেনা থেকে শুরু করে সেগুলোর ডেলিভারি এবং কোরবানি করে মাংস পৌঁছে দেওয়ার মতো সেবা নিয়েও আসছে ই-কমার্স মার্কেটপ্লেসগুলো।

 

করোনা প্রতিরোধে দেশজুড়ে চলছে সাত দিনের ‘কঠোর লকডাউন’। ধারণা করা হচ্ছে, ঈদুল আজহা পর্যন্ত বাড়তে পারে ‘লকডাউনের’ সময়সীমা। এমন পরিস্থিতিতে বরাবরের মতো পশুরহাট বসবে কিনা সে নিয়েও আছে সন্দেহ।  

তবে পশু ব্যবসায়ী ও গ্রাহকদের জন্য এ সমস্যার সমাধান হয়ে এসেছে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম তথা ই-কমার্স মার্কেটপ্লেসগুলো। বরাবরের মতো এবারও নিজেদের প্ল্যাটফর্মে কোরবানির পশু কেনাবেচার সুযোগ রেখেছে বিক্রয় ডট কম। গেল বছর করোনার আঘাতের কারণে কোরবানিতে পশু কেনাবেচার পাশাপাশি গ্রাহকের কাছে পশু ডেলিভারি, কোরবানি করে মাংস কেটে ডেলিভারি ও পশু লাইভ দেখার সুযোগ প্রথমবারের মতো চালু করেছিল প্ল্যাটফর্মটি। এবারও অব্যাহত আছে সেই সুযোগ।  

দেশীয় গরুর ব্যাপক সংগ্রহ নিয়ে ‘ডিজি কাউ’ (https://www.shodagor.com/product-category/digi-cow/) ক্যাম্পেইন রয়েছে মার্কেটপ্লেস সদাগর ডট কমের।  

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফ চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, জুন থেকেই আমাদের প্ল্যাটফর্মে শতাধিক খামারি ও কৃষক তাদের পশু নিবন্ধন করছেন, এখনও হচ্ছে। গ্রাহকরাও সেখান থেকে পশু কিনছেন। রোটারি ইন্টারন্যাশনাল ক্লাবের সঙ্গে আমাদের সমঝোতা স্মারক রয়েছে। তাদের সদস্যরা আমাদের এখান থেকে পশু কেনাকাটার আকর্ষণীয় সেবা পাবেন। আগ্রহী গ্রাহকরা চাইলে আমাদের একটি সহজ গুগল ফর্ম পূরণ করেও পশু কিনতে পারবেন। ফর্মটি পূরণ করে অনলাইনেই জমা দিলে আমরাই তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে ই-মেইল বা হোয়াটসঅ্যাপে পশুর বিস্তারিত তথ্য জানাবো।  

পশু কেনার পাশাপাশি মাংস ডেলিভারির সেবা নিয়ে আরিফ বলেন, আমাদের সঙ্গে দুই শতাধিক কসাই রয়েছেন। রাজধানীর উত্তরা, তেজগাঁও ও মেরাদিয়াতে আমাদের তিনটি পশু জবাইখানা রয়েছে। দুই হাজার গরু জবাই করে মাংস কেটে গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেওয়ার সক্ষমতা রয়েছে আমাদের। এর জন্য সদাগর এক্সপ্রেসের নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থার পাশাপাশি কারওয়ান বাজারের ট্রাক মালিক সমিতির সঙ্গেও আমাদের সমঝোতা চুক্তি রয়েছে।  

অনলাইনে পশু কেনাকাটার সুবিধা রয়েছে আরেক ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ইভ্যালিতেও। আলমগীর র‌্যাঞ্চ-এর উন্নতমানের গরু বিক্রি করবে তারা। এছাড়া খামারি ও ক্রেতাদের মধ্যে সরাসরি সংযোগ করিয়ে দিতে প্রতিষ্ঠানটির রয়েছে ই-বাজার প্ল্যাটফর্ম।  

এ বিষয়ে ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাসেল বলেন, আলমগীর র‍্যাঞ্চ তাদের গরুগুলোকে ভেজালহীন, পুষ্টিকর ও নিরাপদ খাবার খাওয়ানোর মাধ্যমে প্রাকৃতিকভাবে বড় করে থাকে। এছাড়া গরুকে সুস্থ-সবল দেখানোর জন্য সব ধরনের অনিরাপদ ওষুধ কিংবা স্টেরয়েড ব্যবহার থেকে বিরত থাকে। ২৪ ঘণ্টা গরু যত্নের জন্য তারা দক্ষ খামারি ও অভিজ্ঞ চিকিৎসকের সার্বক্ষণিক তত্ত্বাবধানে পরিচ্ছন্ন পরিবেশে পালিত সুস্থ-সবল গরু সরবরাহ করে, যা ক্রেতা ও ভোক্তাদের জন্য হালাল ও স্বাস্থ্যকর মাংস নিশ্চিত করে। ইভ্যালিতে যারা আলমগীর র‍্যাঞ্চ থেকে পশু অর্ডার করবেন ডেলিভারি পর্যন্ত সেই পশুর যাবতীয় পরিচর্যা আমরাই করবো, যার জন্য অতিরিক্ত কোনো মূল্য দিতে হবে না। এছাড়া যারা সরাসরি পশু কেনাবেচা করতে চান তাদের জন্য রয়েছে ই-বাজার। এখানে সহজেই ও নিরাপদে পশু কেনাবেচা করা এবং লেনদেন করতে পারবেন।

বেসরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি সাংগঠনিকভাবেও অনলাইনে কোরবানির পশু বেচাকেনার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। গত বছর ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ও ই-কমার্স ব্যবসায়ীদের সংগঠন ই-ক্যাব যৌথভাবে চালু করে ‘ডিজিটাল হাট’। আসন্ন ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে প্ল্যাটফর্মটিতে শিগগিরই পশু কেনাবেচা শুরু হবে বলে সংগঠনটির পক্ষ থেকে জানা যায়।

এ বিষয়ে ই-ক্যাব পরিচালক আসিফ আহনাফ বলেন, অতিমারি করোনার কারণে স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে গত বছরের মতো এবারও অনলাইনে ডিজিটাল কোরবানির হাট আয়োজন হতে যাচ্ছে। ঢাকা সিটি করপোরেশন, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ ডেইরি ফার্মার্স অ্যাসোসিয়েশনের যৌথ ব্যবস্থাপনায় এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, আইসিটি ডিভিশন, এটুআই’র সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবারও ডিজিটাল কোরবানির হাট www.digitalhaat.net মার্কেটপ্লেসের মাধ্যমে বাস্তবায়িত হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৭১৮ ঘণ্টা, জুলাই ০২, ২০২১
এসএইচএস/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa