ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩ সফর ১৪৪২

তথ্যপ্রযুক্তি

ওয়ার্ল্ড সামিট অন ইনফরমেশন সোসাইটি অ্যাওয়ার্ড পেল বিসিসি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২২৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৭, ২০২০
ওয়ার্ল্ড সামিট অন ইনফরমেশন সোসাইটি অ্যাওয়ার্ড পেল বিসিসি

ঢাকা: জাতিসংঘের ‘ওয়ার্ল্ড সামিট অন ইনফরমেশন সোসাইটি (ডাব্লিউএসআইএস) অ্যাওয়ার্ড -২০২০’ পেলো বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল বিসিসি। নবম অ্যানুয়াল অ্যাওয়ার্ডের এই আয়োজনে ই-এমপ্লয়মেন্ট ক্যাটাগরিতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের আওতাধীন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এই পুরস্কার পেলো।

কাউন্সিলের আওতায় ‘বিজিডি ই-গফ সিআইআরটি’-এর সক্ষমতা বৃদ্ধি শীর্ষক প্রকল্পের বাংলাদেশ ন্যাশনাল ডিজিটাল আর্কিটেকচার (বিএনডিএ) দল তাদের ই-রিক্রুটমেন্ট প্ল্যাটফর্ম (erecruitment.bcc.gov.bd) নিয়ে এই অ্যাওয়ার্ড অর্জন করল বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায় আইসিটি বিভাগ।

সোমবার (৭ সেপ্টেম্বর) অনলাইনে অনুষ্ঠিত ‘ডাব্লিউএসআইএস ফোরাম ২০২০’ এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে আন্তর্জাতিক টেলিকমিউনিকেশন্স ইউনিয়নের (আইটিইউ) মহাসচিব জনাব হাওলিন ঝাও এই ঘোষণা দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইউএন এসকেপ’র নির্বাহী সচিব আর্মিদা সালসিয়া আলিসজাবানা, আইটিইউ প্রতিনিধি ক্যাটালিন ম্যারিনেসক, ডমিনিক্যান রিপাবলিকের অ্যামব্যাসেডর ক্যাটরিনা ন্যট, ইন্টারন্যাশনাল সিভিল অ্যাভিয়েশন অর্গানাইজেশনের সেক্রেটারি জেনারেল ফ্যাং লিউসহ আরো অনেকে।

বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের এই অর্জনে অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ বিনির্মাণে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। জাতিসংঘের ‘ওয়ার্ল্ড সামিট অন ইনফরমেশন সোসাইটি অ্যাওয়ার্ড-২০২০’ এর এই অ্যাওয়ার্ডটি ভবিষ্যতে আরোও বিভিন্ন সফল উদ্যোগ নিতে সকলকে অনুপ্রাণিত করবে।

‘ওয়ার্ল্ড সামিট অন ইনফরমেশন সোসাইটি অ্যাওয়ার্ড-২০২০’ এর মাধ্যমে এই আন্তর্জাতিক সম্মাননা দেওয়ায় আয়োজকসহ অ্যাওয়ার্ড নির্বাচন কমিটিকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম।

এ অর্জনের বিষয়ে বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের (বিসিসি) নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব বাংলানিউজকে বলেন, এই আন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ড আমাদের জন্য অত্যন্ত গর্বের বিষয়। বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল বাংলাদেশ সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়র জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণের মাধ্যমে নিরলস চেষ্টা করছে। এরই একটি সফলতার নিদর্শন হল এই পুরস্কার। রিক্রুটমেন্ট প্রসেস ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসটি বিএনডিএ ফ্রেমওয়ার্কের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে যাতে এটা বিসিসিকে সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ উদ্যোগে অবদান রাখতে সহায়তা করে। মুজিব বর্ষে এই অ্যাওয়ার্ড আমাদের নতুনভাবে অনুপ্রেরণা যোগাবে। আইসিটি খাতে বিশ্বব্যাপী রোল মডেল হিসেবে বাংলাদেশ যে পরিচিতি পেয়েছে এই পুরস্কার তারই স্বীকৃতি।

এবারের আয়োজনে মোট ১৮টি ক্যাটাগরিতে আবেদন গ্রহণ করা হয়। যেখানে মোট ৭৬২টি সাবমিশন থেকে ৩৫৪টি প্রকল্পকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। প্রতিটি ক্যাটাগরিতে চারটি করে মোট ৭২টি প্রকল্পকে চ্যাম্পিয়ন হিসেবে এবং সেরা প্রকল্প হিসেবে প্রতিটি ক্যাটাগরিতে একটি করে মোট ১৮টি প্রকল্পকে চূড়ান্ত বিজয়ী (উইনার) হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ই-এমপ্লয়মেন্ট ক্যাটেগরিতে ফিলিপাইনস্, সৌদিআরব, ইসরাইল ও বাংলাদেশ নমিনেশন পায় এবং বাংলাদেশ চূড়ান্ত বিজয়ী হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২২১৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৭, ২০২০
এসএইচএস/এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa