ঢাকা, বুধবার, ৫ আষাঢ় ১৪২৬, ১৯ জুন ২০১৯
bangla news

যুক্তরাজ্যে যাচ্ছেন ফেমল্যাব-২০১৯ বিজয়ী নূর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-২৪ ১২:১৬:২০ পিএম
একই ফ্রেমে ফেমল্যাবের প্রতিযোগী, বিজয়ী ও অতিথিরা

একই ফ্রেমে ফেমল্যাবের প্রতিযোগী, বিজয়ী ও অতিথিরা

ঢাকা: ব্রিটিশ কাউন্সিলের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিযোগিতা ফেমল্যাব-২০১৯ এর বাংলাদেশ পর্বে বিজয়ী হয়েছেন এ এস এম আফরিন বিন নূর আদিব। এর মাধ্যমে যুক্তরাজ্যের শেলটেনহ্যামে অনুষ্ঠিতব্য আন্তর্জাতিক শেলটেনহ্যাম সায়েন্স ফেস্টিভ্যালে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী নূর।

শনিবার (২৩ মার্চ) রাজধানীর একটি হোটেলে বাংলাদেশ পর্বের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হয়। এসময় ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করেন। প্রধান অতিথির হাত থেকে পুরস্কার গ্রহণের পর নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন ফেমল্যাবের বাংলাদেশ পর্বের বিজয়ী নূর। 

বিজয়ী হিসেবে নূর শেলটেনহ্যামে সফলভাবে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ফেমল্যাব বিজ্ঞানকে একটি মজার বিষয়ে পরিণত করেছে। এটা বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় বিজ্ঞানের যোগাযোগ বিষয়ক প্রতিযোগিতা। তরুণ ও অন্যান্য অংশের সঙ্গে যেন বিজ্ঞানী ও প্রকৌশলীরা সম্পৃক্ত হতে পারে এ বিষয়ে উৎসাহ ও উদ্দীপনা প্রদানই এ আয়োজনের উদ্দেশ্য। 

এ ধরনের প্রতিযোগিতার মধ্যে দিয়ে মেধাবী তরুণ-তরুণীরা বেরিয়ে আসে উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, গত ১০ বছর ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অগ্রগতি হয়েছে সেখানে এই তরুণেরা ভূমিকা রাখবে। তারুণ্যের শক্তিকে কাজে লাগিয়ে দেশ ভবিষ্যতে আরও এগিয়ে যাবে। ফেমল্যাবের মতো প্রাইভেট খাতে আমাদের যেসব পার্টনাররা আছেন তাদের এ ধরনের আয়োজনের মধ্যে দিয়ে আমাদের তরুণেরা দেশ ও বিদেশের সমস্যার সমাধান করবে এবং আইটি-আইসিটিতে বিশ্বে নেতৃত্ব দেবে। 

অনুষ্ঠানে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বের বিচারক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক হুমায়রা আক্তার, সহকারী অধ্যাপক ডক্টর মুসতাক ইবনে আইয়ুব,  ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভাষক এমকে শরিফ সিয়ামসহ ব্রিটিশ কাউন্সিলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 

২০০৭ সাল থেকে ব্রিটিশ কাউন্সিল অফ লিভের অংশীদারিত্বে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই প্রতিযোগিতা আয়োজিত হয়ে আসছে। আর ২০১৮ সালে প্রথমবার বাংলাদেশে আয়োজিত হয় এই প্রতিযোগিতা। 

এবারের আয়োজনে ঢাকা-সিলেট ও চট্টগ্রামে অডিশন ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। এতে প্রায় ৬০০ জন প্রতিযোগী আবেদন করেন। সংক্ষিপ্ত বাছাইয়ের মাধ্যমে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ঢাকায় ১৫০ জন, চট্টগ্রামের ৬০ জন এবং সিলেটে ৬০ এরও বেশি শিক্ষার্থী নির্বাচিত হয়। আর চূড়ান্ত পর্বের জন্য নির্বাচিত হয় ১৪ জন প্রতিযোগী। 

শেলটেনহ্যামে অনুষ্ঠিতব্য প্রতিযোগিতার ফাইনালে বিশেষজ্ঞ বিচারক প্যানেল পাঁচ মহাদেশের ফাইনালিস্টদের মধ্য থেকে সবচেয়ে  সহজাত ও দক্ষতাসম্পন্ন প্রতিযোগীকে চূড়ান্ত বিজয়ী হিসেবে ঘোষণা করবেন। 

বাংলাদেশ সময়: ১২১৬ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০১৯
এসএইচএস/আরআর

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-03-24 12:16:20