ঢাকা, শনিবার, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ জুলাই ২০১৯
bangla news

অফারের ছড়াছড়ি স্মার্টফোন-ট্যাব মেলায়

বাংলানিউজ টিম | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১১ ৯:৫২:৪৬ পিএম
ট্যাব মেলায় দর্শনার্থীদের ভীড়/ছবি: শাকিল

ট্যাব মেলায় দর্শনার্থীদের ভীড়/ছবি: শাকিল

ঢাকা: বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে চলছে তিন দিনব্যাপী স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা। ঠিক তার কয়েকশ গজ দূরেই চলছে ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা। তার ওপর ছুটিরদিন হওয়ায় উভয় মেলাপ্রঙ্গণে বেশ ভীড়।

বিশেষ করে ছাড় এবং উপহারের ছড়াছড়িতে জমে উঠেছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা।

শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) ছুটিরদিন থাকায় সকাল থেকে ভীড় ছিল বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে চলতে থাকা তিন দিনব্যাপী ট্যাব মেলায়। শেষ বিকেলে ভীড় বেড়ে যায় আরো। যখন চাপ বাড়া শুরু হয়েছিল পাশেই চলমান আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায়। দীর্ঘ লাইন ধরে ট্যাব মেলায় দর্শনার্থীদের প্রবেশ করতে দেখা যায় এ সময়। 

প্যাভিলিয়ন ও স্টলগুলো ঘুরে দেখা যায়, প্রায় সব স্টলেই ছাড় ও উপহারের ঘোষণা চলছে। অনেকেই কমদামে পছন্দের ডিভাইসটি কিনতে ভীড় জমাচ্ছেন। বড়দের পাশাপাশি ছোট ও শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ ছিল দেখার মতো। বিক্রিও হচ্ছে বেশ।

দর্শনার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বাণিজ্যমেলা ঘুরতে এসে একসঙ্গে এ মেলাতেও ঘুরে যাচ্ছেন তারা। একসঙ্গে দু’টো মেলা পাওয়ায় বেশ উৎফুল্ল থাকতে দেখা গেছে দর্শনার্থীদের। 

ট্যাব মেলায় দীর্ঘ লাইন ধরে ঢোকার সময় মতিঝিল থেকে আগত দর্শনার্থী রিজন বাংলানিউজকে জানান, বাণিজ্যমেলায় এসেছিলাম ঘুরতে। ট্যাব মেলার খবর ফেসবুকের আগে দেখেছি, কিন্তু আসা হয়নি। এখন বাণিজ্যমেলায় ঘোরার পর এখানেও দেখে যাচ্ছি। আর এখানকার অফারগুলো অনেক আকর্ষণীয় বলে জেনেছি। ভেতরে গিয়ে দেখি।

ট্যাব মেলা প্রাঙ্গণে গিয়ে দেখা যায়, দর্শনার্থীদের ভীড়ে তিল পরিমাণ জায়গা খালি নেই। লোকে ঠাসা মেলায় প্রায় সব স্টল থেকে শোনা যাচ্ছে অফার জিতে নেওয়ায় উচ্ছ্বাস। আর প্রতি ঘণ্টার অফার জিতলেই স্ব স্ব কোম্পানির স্টলে বাজছে ঘণ্টা বা নির্দিষ্ট কোনো শব্দ। 

স্যামসাং-এর ট্যাব কিনে ৪০ শতাংশ ছাড় পেয়েছেন ধানমন্ডির বাসিন্দা মৌমিতা। বাংলানিউজকে তিনি জানান, আমি ৪০ শতাংশ ছাড় পেয়েছি। খুব খুশি হয়েছি। এখানে প্রতিটা স্টলে ছাড় ও উপহারের ছড়াছড়ি দেখে এলেই আনন্দ লাগছে। 

এবারের মেলায় বিশ্বখ্যাত সব ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট পাওয়া যাচ্ছে। অংশ নিয়েছে হুয়াওয়ে, স্যামসাং, টেকনো, ভিভো, উই, গোল্ডেনফিল্ড, মোটোরোলা, নকিয়া, আইফোন, ইউসিসি, আইটেল, ইনফিনিক্স, ইউমিডিজি, ডিটেল, এডিএ, ম্যাক্সিমাস, বিজয় এবং ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান প্রিয়শপ ডটকমসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও প্রতিষ্ঠান। ব্র্যান্ডগুলো মেলায় বিভিন্ন মডেলের স্মার্টফোন ও স্মার্ট ডিভাইস প্রদর্শন এবং বিক্রি করছে। পাওয়া যাচ্ছে মোবাইল অ্যাক্সেসরিজও। এ ছাড়া মেলা উপলক্ষে বেশ কিছু মডেলের স্মার্টফোন উন্মোচনও করা হয়েছে।

আয়োজকদের সূত্রে জানা গেছে, হুয়াওয়ে মেলায় ব্র্যান্ডটির বিভিন্ন স্মার্টফোনে উপহারসহ ২০ শতাংশ পর্যন্ত বিশেষ ছাড় ও অ্যাক্সেসরিজে ৪০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে। স্যামসাংয়ের ফোন কিনে মিলছে সর্বোচ্চ ৪০ শতাংশ পর্যন্ত মূল্যছাড়। টেকনোর ফোনে মিলছে সর্বোচ্চ ১২ শতাংশ ছাড়। মেলায় ভিভোর ফোন কিনে মিলছে সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ পর্যন্ত মূল্যছাড়। স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ‘উই’ স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলায় বিশেষ অফার নিয়ে এসেছে। মোটোরোলার ফোন কিনে পাওয়া যাচ্ছে ফ্রি স্পিকার। ইনফিনিক্স ফোনে মিলছে ১০ শতাংশ মূল্যছাড়। ইউমিডিজি স্মার্টফোন কিনলে মিলবে সর্বোচ্চ ২০ শতাংশ মূল্যছাড়।

মেলায় ঘুরতে আসা আলমগীর হোসেন বলেন, প্রতিবারই মেলাতে আসি এবার মেলা দেখছি একটু অন্যরকম। তুলনামূলক ভীড় বেশি। ছাড় ও উপহারের তালিকাও র্দীঘ। তবে আমার বাজেট যা তার মধ্যে ফোন অনেক পেয়েছি সেগুলো মধ্যে একটি কিনব। মেলা আসার মজায় এটা। অনেক ফোন দেখে পছন্দ মতো কেনা যায়। 

ঢাকার বাইরে থেকে এসেছেন রেজোয়ান করিম। তিনি থাকেন নারায়ণগঞ্জ। মোবাইল ফোন কেনার জন্যই তিনি মেলাতে এসেছেন। বাজেটও সীমিত। তিনি জানান, স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা ভালো লাগে। আসার চেষ্টা করি সব সময়। এবার এসেছি মোবাইল ফোন কিনতে। আবার সঙ্গে বাণিজ্য মেলাটাও আছে। সব মিলিয়ে ভালোই।

স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট কম্পিউটার নিয়ে দেশে এক্সপো মেকারের আয়োজনে এটি একাদশ প্রদর্শনী।

এ বিষয়ে এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান জানান, প্রদর্শনী উপলক্ষে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বিশেষ ছাড় ও উপহার দিচ্ছে। দর্শকরা প্রযুক্তির আধুনিক সব স্মার্ট ডিভাইস যাচাই বাছাই করে দেখতে ও কিনতে পারছেন। এ ছাড়া থাকবে অন্য অনেক আয়োজন।

আয়োজকদের ফেসবুক পেইজে (https://www.facebook.comSTExpo) ইতোমধ্যে কুইজ কনটেস্ট শুরু হয়েছে। এতে বিজয়ীরা পাবেন আকর্ষণীয় পুরস্কার। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। মেলায় প্রবেশ ফি ২০ টাকা। তবে প্রতিবন্ধী এবং শিক্ষার্থীরা আইডি কার্ড দেখিয়ে বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবেন। এছাড়া মেলায় মূল্যছাড়ের পাশাপাশি উপহার, গিফট বক্স, র‌্যাফেল ড্র, সেলফি প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা রেখেছে ব্র্যান্ডগুলো।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০১৯
এমএএম/টিএম/এসএইচ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-01-11 21:52:46