bangla news

টাইমস এর অনলাইন সংস্করণ পাঠে গুনতে হবে খরচ

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-০৭-০১ ৮:৩৬:২৯ পিএম

এখন থেকে টাইমস ও সানডে টাইমস পত্রিকার ইন্টারনেট সংস্করণ পড়তে গুনতে হবে খরচ। পত্রিকা দুটির ইন্টারনেট সংস্করণ পড়তে প্রতিদিন ১ পাউন্ড খরচ করতে হবে পাঠকদের। তবে নিবন্ধিত পাঠকরা প্রতি সপ্তাহে ২ পাউন্ডের বিনিময়ে পত্রিকা দুটি পড়ার সুযোগ পাবেন।

এখন থেকে টাইমস ও সানডে টাইমস পত্রিকার ইন্টারনেট সংস্করণ পড়তে গুনতে হবে খরচ। পত্রিকা দুটির ইন্টারনেট সংস্করণ পড়তে প্রতিদিন ১ পাউন্ড খরচ করতে হবে পাঠকদের। তবে নিবন্ধিত পাঠকরা প্রতি সপ্তাহে ২ পাউন্ডের বিনিময়ে পত্রিকা দুটি পড়ার সুযোগ পাবেন।

উল্লেখ্য, নিবন্ধনের পর শুধু প্রথম মাসের পত্রিকার ইন্টারনেট সংস্করণের গ্রাহক হতে ১ পাউন্ড ব্যয় করতে হবে। সূত্রে জানা যায়, অনলাইন বিজ্ঞাপন থেকে প্রত্যাশিত মুনাফা অর্জিত না হওয়ায় এ উদ্যোগ নেওয়া হয়। পত্রিকা দুটির স্বত্ত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান নিউজ ইন্টারন্যাশনাল চলতি বছরের প্রথমভাগে অর্থের বিনিময়ে ইন্টারনেট সংস্করণ পড়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়। সিদ্ধান্তটি এ মুহুর্তে বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। তবে সংশ্লিষ্টদের মতে, টাইমস এর ইন্টারনেট সংস্করণ পাঠে ব্যয় ধার্য করায় পাঠক সংখ্যা কমে যাওয়ার আশঙ্কা আছে। অন্যদিকে প্রাতিষ্ঠানিক সূত্রে জানানো হয়, পাঠকদের কথা বিবেচনায় রেখেই ইন্টারনেট সংস্করণ পড়তে খুবই স্বল্প ব্যয় নির্ধারণ করা হয়।   

এ মূহুর্তে শুধু ফিন্যান্সিয়াল টাইমস ও ওয়াল ষ্ট্রিট জার্নাল এর ইন্টারনেট সংস্করণ পাঠে খরচ গুনতে হয়। তবে অন্য সব আন্তর্জাতিক পত্রিকার ইন্টারনেট সংস্করণ এখনও বিনামূল্যেই পড়ার সুযোগ বরাদ্দ আছে। ইন্টারনেট ট্রাফিক গণনা প্রতিষ্ঠান এক্সপেরিয়ান হিটওয়াইজ এর রবিন গোড জানান, যখন ওয়াল ষ্ট্রিট জার্নাল এর ইন্টারনেট সংস্করণ পাঠে ব্যয় ধার্য করা হয় ঠিক তখন থেকেই পত্রিকাটির পাঠক সংখ্যা ৬০ ভাগ কমে যায়। টাইমস এর বেলায়ও একই দশা হবে। ইতিমধ্যে টাইমস পত্রিকার পাঠক সংখ্যাও কমতে শুরু করেছে বলে রবিন গোড মন্তব্য করেন।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় ১৬৫৮ ঘণ্টা, জুলাই ২, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2010-07-01 20:36:29