ঢাকা, শনিবার, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ভারত

গোয়াতে নজরবন্দি ৫ বাংলাদেশি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪১ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২২
গোয়াতে নজরবন্দি ৫ বাংলাদেশি

কলকাতা: ভারতের গোয়া রাজ্যে ‘ফরেনার্স রিজিওনাল রেজিস্ট্রেশন অফিস’-এর (এফআরআরও) নির্দেশে পাঁচ বাংলাদেশি নাগরিককে নজরবন্দি রাখা হয়েছে। এদের সবার বিরুদ্ধেই অভিযোগ, গত ১০ বছর ধরে ভারতে অবৈধভাবে বসবাসের।

 

এই পাঁচ বাংলাদেশি হলেন মোহাম্মদ আনোয়ার আখন, হিলাল আখন, হাসান মিয়া, নুরজাহান বেগম ও রাজা আখন। বাংলাদেশ থেকে ভারতের অনুপ্রবেশের পর প্রথম পাঁচ বছর ব্যাঙ্গালোরে থাকলেও শেষ পাঁচ বছর গোয়াতে ভাঙারি (টিন ভাঙ্গা, লোহা ভাঙ্গা) সংগ্রহের কাজ করতেন তারা।  
 
গোয়া পুলিশের সন্ত্রাস দমন শাখার (এটিএস) পরিদর্শক ভিলেশ দূর্ভাতকার ভারতের এক দৈনিক ইংরেজি পত্রিকাকে জানিয়েছেন, নজরবন্দি হওয়া পাঁচ নাগরিকই বাংলাদেশি এবং তাদের গোয়ার বাইরে যেতে নিষেধ জারি করা হয়েছে।

গোয়া পুলিশ জানিয়েছে, তারা সবাই ভারতের বেঙ্গালুরু শহরে ছিল পরে সেখান থেকে গোয়ায় চলে আসেন  ।   

এক সিনিয়র এফআরআরও কর্মকর্তা জানান, যতদিন বাংলাদেশে হস্তান্তর করা হচ্ছে ততদিন ওই পাঁচ বাংলাদেশিদের নজরবন্দির মেয়াদ প্রতিমাসে নবায়ন করা হবে এবং পুলিশ তাদের গতিবিধির ওপর নজর রাখবে। মেয়াদ নবায়নের সময় ওই বাংলাদেশিদের সন্ধান পাওয়া না গেলে তৎক্ষণাৎ তাদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হবে।

আর এই সময়কালে তাদের বাংলাদেশস্থ ঠিকানা, সেখানকার স্থানীয় থানা পুলিশসহ বিভিন্ন নথি সংগ্রহ করা হবে। পাশাপাশি ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বাংলাদেশ হাইকমিশনের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের জরুরি ভিত্তিতে ট্রাভেল ডকুমেন্টস তৈরি করা হবে। কারণ এই ৫ নাগরিকের ভারতে প্রবেশের কোনো বৈধ পাসপোর্ট ভিসা বা নথি নেই। প্রয়োজনীয় এই নথি তৈরির পরে ওই পাঁচ নাগরিককে বিএসএফের হাতে তুলে দেওয়া হবে এবং পরবর্তী পর্যায়ে আইন অনুযায়ী তাদেরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হবে।

বাংলাদেশ সময়:১৯৩৭ঘণ্টা, সেপ্টম্বর ২১, ২০২১
ভিএস/ইআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa