ঢাকা, শনিবার, ১৬ আশ্বিন ১৪২৯, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ভারত

অর্পিতার পর পার্থর ঘনিষ্ঠ মোনালিসার দিকে নজর ইডির

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১০৭ ঘণ্টা, জুলাই ২৯, ২০২২
অর্পিতার পর পার্থর ঘনিষ্ঠ মোনালিসার দিকে নজর ইডির

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের বরখাস্ত হওয়া শিল্পমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের পর এবার ইডির নজর আরেক সহযোগী মোনালিসা দাসের ওপর। সম্প্রতি খোঁজ মিলেছে পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়ের এই ঘনিষ্ঠের।

যিনি কিনা বীরভূম জেলায় মন্ত্রীর সম্পত্তির দেখাশোনা করতেন।

ইডি সূত্রে জানা যায়, বীরভূমের শান্তিনিকেতনে ফুলডাঙা ও প্রান্তিক এলাকায় তিতলি, অপা, চরবাড়িসহ বিভিন্ন নামের মোট ৭টি বাড়ি রয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের।

স্থানীয়রা বলেছেন, এসব বাড়িতেই মাঝেমধ্যে আসতেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এসব সম্পত্তির দেখাশোনা করতেন পার্থ ঘনিষ্ঠ মোনালিসা দাস।

বিশ্বভারতীর শিক্ষার্থী হওয়ার সুবাদে প্রায়ই শান্তিনিকেতন আসা-যাওয়া ছিল মোনালিসা দাসের। এসব বাড়ির দেখাশোনা  করতেন মোনালিসা। তিনি মাঝে মধ্যেই আসতেন বোলপুরে। এছাড়া বোলপুরের জামবুনি এলাকায় মৃণালিনী আবাসন নামে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আরও এক সম্পত্তির খোঁজ মিলেছে।  

জানা গেছে, অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি তল্লাশির মধ্যেই এই বাড়িগুলিতেও তল্লাশি চালাতে পারে ইডি।

এদিকে অর্পিতার কলকাতার টালিগঞ্জের ডায়মন্ড সিটির পর উত্তর ২৪ পরগনার বেলঘরিয়ার একটি ফ্ল্যাট থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ উদ্ধার করেছে ইডি। সব মিলিয়ে ৫১ কোটি ৯০ লাখ রুপি। এছাড়া স্বর্ণে গহনা, রুপার মুদ্রা, একাধিক সম্পত্তির হদিশ পাওয়া গেছে।

ইডি সূত্রে জানা যায়, অর্পিতা জানিয়েছেন- পার্থ কথায় এসব অর্থ রেখে আসতেন অন্য সদস্যরা। এমনকি ওই রুমে প্রবেশের অনুমতি ছিল না স্বয়ং অর্পিতারও।

এবার সেই ফ্ল্যাটের তালিকায় যুক্ত হয়েছে বাগুইহাটির একটি আবাসন। বৃহস্পতিবার(২৮ জুলাই) একটি ফ্ল্যাটের খোঁজ পেয়েছে ইডি। এদিন বিকেলের পর হঠাৎ ওই ফ্ল্যাটে হাজির হন ইডির তদন্তকারী কর্মকর্তারা। ফ্ল্যাটে কোনও নথি বা অর্থ রাখা রয়েছে কিনা, সেই বিষয়ে খতিয়ে দেখতেই অভিযান চালায় ইডির কর্মকর্তারা। ফ্ল্যাটটিতে তালা ভেঙে ভিতরে ঢোকেন তারা। যদিও পরবর্তীতে সিল করে দেন কর্মকর্তারা। তবে ফ্ল্যাটটির ভেতরে কি পাওয়া গেছে তা নিয়ে ওইদিন মুখ খোলেননি ইডির কর্মকর্তারা।  

এরআগে বুধবার (২৭ জুলাই) অর্পিতার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালায় ইডি। পরে ফ্ল্যাটের ভেতরে রুপি পায় তারা। মধ্যরাত পর্যন্ত সেখানে তল্লাশি চালিয়ে ২৯ কোটি ৯০ লাখ রুপি, ৫ কেজি স্বর্ণের বার, ৪ দশমিক ৩১ কোটি রুপির স্বর্ণের গহনা এবং প্রচুর জমির দলিল উদ্ধার হয়।  

সূত্রে জানা যায়, শুধু ঘরের আলমারিসহ অর্পিতার ফ্ল্যাটের বাথরুম থেকেও রুপি উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে ৫০০ এবং দু'হাজার রুপির নোট ছিল।

এর আগে শনিবার (২৩ জুলাই) টালিগঞ্জে অর্পিতার ফ্ল্যাটে যায় ইডি। সেখান থেকে নগদ প্রায় ২২ কোটি রুপি উদ্ধার হয়। শুধু বিপুল পরিমাণ নগদ-ই নয়, ৫৮ লাখ রুপির স্বর্ণের গহনা, বৈদেশিক মুদ্রা এবং ২০টি মোবাইল ফোনও উদ্ধার করেন ইডি কর্মকর্তারা। ২৩ জুলাই থেকে আদালতের নির্দেশে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও তার ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায় রিমান্ডে। তাদের জেরা করে প্রতিদিনই উঠে আসছে নানান তথ্য।  

জানা গেছে, এবার ইডির নজর পার্থর আরও এক ঘনিষ্ঠ মোনালিসা দাসের ওপর।

পাশাপাশি এদিন মন্ত্রিত্ব, দল, পদ সবকিছুই হারাতে হয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। শিল্প, তথ্যপ্রযুক্তি এবং পরিষদীয় এ তিন দফতরের মন্ত্রীর পদ থেকে সরানো হয়েছে তাকে। একইভাবে দলের মহাসচিব এবং মুখপাত্রের পদ থেকে অপসারণ করা হয় পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে। পাশাপাশি দলীয় সংবাদপত্র জাগো বাংলার সম্পাদকসহ দলের সব পদ থেকে তাকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে সাময়িক বরখাস্তের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দল।

বাংলাদেশ সময়: ১১০৭ ঘণ্টা, জুলাই ২৯, ২০২২
ভিএস/এনএইচআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa