ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

ভারত

বিধায়ক হিসেবে শপথ নিলেন মমতা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্টর.কম | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫১৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ৭, ২০২১
বিধায়ক হিসেবে শপথ নিলেন মমতা

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী পদে আগেই শপথ নিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) ভবানীপুর উপ-নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে এবার বিধায়ক হিসেবেও শপথ নিয়েছেন তিনি।

শুধু জয়ই পাননি, জয়ী হয়েছেন বাংলার দিদি।

মমতার সঙ্গে মুর্শিদাবাদ জেলার জঙ্গিপুর থেকে বিজয়ী জাকির হুসেন ও সামসেরগঞ্জের আমিরুল ইসলামও বিধায়ক হিসেবে শপথ নিয়েছেন। তাদের বিধানসভার অধিবেশন কক্ষে শপথবাক্য পাঠ করান পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

তবে মমতার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে বিজেপির কোনো বিধায়ক উপস্থিত ছিলেন না। বিরোধীশূন্য বিধানসভায় শপথ নিয়েছেন দিদি।

মূলত, ৩০ সেপ্টম্বর কলকাতায় হয়ে যাওয়া উপ-নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিই আস্থা দেখিয়েছে ভবানীপুর। প্রতিপক্ষকে অতীতের সব নজির ভেঙে ৫৮ হাজার ৮৩৫ ভোটের রেকর্ড ব্যবধানে হারিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকি এবার ভবানীপুর বিধানসভার অন্তর্গত আট ওয়ার্ডের সবকয়টিতেই জয় পেয়েছেন তৃণমূল প্রধান।

তবে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিধানসভার স্পিকার না রাজ্যপাল কার কাছে শপথবাক্য পাঠ করবেন তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছিল। নিয়ম অনুযায়ী, উপ-নির্বাচনে জয়ী প্রার্থীদের রাজ্যপালের অনুমতিক্রমে বিধানসভার স্পিকার শপথবাক্য পাঠ করান। অর্থাৎ রাজ্যপাল অনুমতি দিলেই ভবানীপুর উপ-নির্বাচনে জয়ী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে স্পিকার শপথবাক্য পাঠ করাতে পারবেন। কিন্তু মমতা বিষয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় নিজেই শপথবাক্য পাঠ করানোর আগ্রহ দেখান। জনপ্রতিনিধিত্ব আইনের ধারায় সেই ক্ষমতা নিজের হাতে নিয়েছেন রাজ্যপাল।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৭ ঘণ্টা, ০৭ অক্টোবর ২০২১
ভিএস/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa