ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

ভারত

মিজোরামে পাত্তা পেল না বিজেপি-কংগ্রেস, ক্ষমতায় নতুন দল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২৩
মিজোরামে পাত্তা পেল না বিজেপি-কংগ্রেস, ক্ষমতায় নতুন দল

কলকাতা: না বিজেপি, না কংগ্রেস। কেউই পাত্তা পেল না।

ভারতের মিজোরাম রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতা দখল করল নতুন রাজনৈতিক দল জোরাম পিপলস মুভমেন্ট (জেডপিএম)।  

গত ৭ নভেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ভোটগণনা হয়েছে সোমবার (৪ ডিসেম্বর)। গণনা শুরুর পর থেকেই পরিষ্কার হতে থাকে চিত্রটা। শেষ পর্যন্ত ফলাফলে নিরঙ্কুশ জয় পায় জেডপিএম।

মিজোরাম বিধানসভার আসন ৪০টি। সেখানে সরকার গড়ার জন্য প্রয়োজন ২১ আসনের। ভোট হয়েছে তিন দলের মধ্যে। শাসক মিজো ন্যাশনাল ফ্রন্ট (এমএনএফ), বিরোধী দল জোরাম পিপলস‌ মুভমেন্ট (জেডপিএম) এবং সাবেক শাসক দল কংগ্রেসের। এই তিন দলই সব আসনে প্রার্থী দিয়েছিল। মিজোরামের সব কেন্দ্রে প্রার্থী দিতে পারেনি বিজেপি। তারা লড়েছিল ২৩টি আসনে।

২০১৮ সালে মিজো ন্যাশনাল ফ্রন্ট ক্ষমতায় আসার পর রাজ্যের আটটি রাজনৈতিক দল একত্রিত করে গঠিত হয় জেডপিএম। ঘোষিত অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত ২৭ আসনে জয় পেয়েছে তারা। অর্থাৎ ম্যাজিক ফিগার ছুঁয়ে ফেলায় মিজোরামে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে লালডুহোমার দল।

২০০৮ থেকে ২০১৩ পর্যন্ত মিজোরাম ছিল কংগ্রেসের দখলে। এরপর ২০১৮ সালে ক্ষমতায় আসে বিজেপির জোট শরিক মিজো ন্যাশনাল ফ্রন্ট (এমএনএফ)। এবারের ভোটে তারা পেয়েছে ১০ আসন।

অন্যদিকে রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড়ে মুখ থুবড়ে পড়া কংগ্রেস মিজোরামে আরও লজ্জার মুখে পড়েছে। সবকটি আসনে প্রার্থী দিলেও মাত্র একটি আসনে জয়ী হয়েছে তারা। তাদের চেয়ে এক আসন বেশি পেয়ে ‘সান্ত্বনা’ পাচ্ছে বিজেপি।

ফলে ভারতের মাত্র তিন রাজ্য অর্থাৎ হিমাচল প্রদেশ, কর্নাটক ও তেলেঙ্গানায় ক্ষমতায় থাকল কংগ্রেস। যা ভারতের আসন্ন লোকসভা ভোটের আগে যথেষ্ট আশাহত করেছে কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকদের। অন্যদিকে মিজোরামে ফল ভালো না হলেও তিন রাজ্যে গেরুয়া ঝড় তুলে উচ্ছ্বসিত বিজেপি শিবির। তাদের কর্মী-সমর্থকদের আশা, বিধানসভার ভোটের এই চিত্র দেখা যাবে লোকসভার ভোটে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪, ২০২৩
ভিএস/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।