ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২৩ শাবান ১৪৪৫

ভারত

এইডস সচেতনতা দিবস উপলক্ষে আগরতলায় আলোচনা সভা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২৩
এইডস সচেতনতা দিবস উপলক্ষে আগরতলায় আলোচনা সভা

আগরতলা(ত্রিপুরা): মারণব্যাধি এইচআইভি এইডস সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করার লক্ষ্যে প্রতি বছর ১ ডিসেম্বর দিনটিকে বিশ্ব এইচআইভি এইড সচেতনতা দিবস হিসেবে উদযাপন করা হয়। বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে শুক্রবার ত্রিপুরা রাজ্যজুড়ে এই দিনটি উদযাপন করা হয়।

রাজ্যের মূল অনুষ্ঠানটি হয় রাজধানী আগরতলার উমাকান্ত একাডেমি মাঠে। এখানে প্রথমে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এরপর একটি সচেতনতা র‍্যালি করা হয়।

এদিনের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অধ্যাপক ডা মানিক সাহা, ত্রিপুরা সরকারের ক্রীড়া এবং যুব বিষয়ক দপ্তরের মন্ত্রী টিংকু রায়, ত্রিপুরা রাজ্য মহিলা কমিশনের চেয়ারপারসন ঝর্ণা দেববর্মা, জিমনাস্ট এবং ত্রিপুরা রাজ্য এইডস কন্ট্রোল সোসাইটির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর পদ্মশ্রী দীপা কর্মকার সহ ত্রিপুরা সরকারের স্বাস্থ্য দপ্তরের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যে এইচআইভি এইডসের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। বিশেষ করে রাজ্যে যুব প্রজন্মের মধ্যে এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা আশঙ্কা জনক ভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে তিনি জানান। ২০২৩ সালের অক্টোবর মাসের হিসাব অনুসারে ত্রিপুরা রাজ্যে এইচআইভি পজিটিভ এর সংখ্যা ৫,২৬৯ জন, এরমধ্যে ছাত্রছাত্রী সংখ্যা ৫৭৬জন। সেই সঙ্গে তিনি আরো জানান প্রতি মাসে রাজ্যে দেড়শ থেকে ২০০ জন নতুন করে এইচআইভি আক্রান্ত হচ্ছেন। এর মধ্যে বেশিরভাগই এক সিরিঞ্জ দিয়ে একাধিক ব্যক্তি নেশা সামগ্রী গ্রহণ করার জন্য সংক্রমিত হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে সকলের সচেতন হওয়া এবং অন্যদেরকে সচেতন করার আহ্বান রাখেন মুখ্যমন্ত্রী।

আলোচনা সভার শেষে র‍্যালির আয়োজন করা হয়। রঙিন বেলুন উড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রীসহ উপস্থিত অতিথিরা র‍্যালির সূচনা করেন। এদিনের এই কর্মসূচিতে বিভিন্ন স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা অংশ নিয়েছিল। তারা এইচআইভি এইডস এর সচেতনতা সম্মিলিত বিভিন্ন প্লে-কার্ড হাতে নিয়ে রেলি করে শহরের বিভিন্ন রাস্তা পরিক্রমা করে। রাজধানী আগরতলার পাশাপাশি রাজ্যের অন্যান্য জায়গাতেও এই দিনটি উদযাপন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১৭ ঘণ্টা,ডিসেম্বর ০১,২০২৩
এসসিএন/এমএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।