ঢাকা, সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

ভারত

রোনালদিনহোকে স্বাগত জানালেন মমতা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৬, ২০২৩
রোনালদিনহোকে স্বাগত জানালেন মমতা

কলকাতা: কলকাতায় এক মন্ত্রীর বারোয়ারি পূজা মণ্ডপ উদ্বোধন করেই ব্রাজিলের কিংবদন্তি ফুটবলার রোনালদিনহো দেখা করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের সঙ্গে।  

সোমবার (১৬ অক্টোবর) বিকেলে মুখ্যমন্ত্রীর কালীঘাটের বাসভবনে দেখা করেন কিংবদন্তির এই ফুটবলার।

অসুস্থতার কারণে বেশ কিছুদিন ধরে বাড়িতেই রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রশাসনিক কাজ সারছেন বাসভবন থেকেই। শারীরিক দুর্বলতা নিয়েই মুখ্যসন্ত্রী স্বাগত জানালেন সাবেক বিশ্বকাপজয়ী ফুটবরারকে। এমনকি রোনালদিনহোর হাতে তুলে দিলেন ফুটবল।

এসময় উপস্থিত ছিলেন কলকাতা কর্পোরেশনের মেয়র ও মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, পশ্চিমবঙ্গের ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস, দমকল মন্ত্রী সুজিত বোস, ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের কর্মসমিতির সদস্য দেবব্রত সরকার, মোহনবাগান ক্লাবকর্তা সত্যজিৎ চক্রবর্তী, মহামেডান স্পোটিং ক্লাবের কর্তারাসহ অন্যরা।

সেখানে রোনালদিনহো লেখা ১০ নম্বর জার্সি তার হাতে তুলে দেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। একইভাবে জার্সি তুলে দেয় মোহনবাগান ও মহামেডান স্পোটিং ক্লাব। এসব আনুষ্ঠানিকতা শেষে মমতার টালির ছাউনি দেওয়া ঘরে প্রবেশ করেন রোনালদিনহো। প্রসঙ্গত, টালির ছাউনি দেওয়া ঘরে জন্মলগ্ন থেকে আছেন মমতা। স্মৃতিটুকু ধরে রাখতে ওই একই ঘরেই বাস করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

এর আগে এদিন দুপুরের দিকে দমকল মন্ত্রীর পুজো বলে পরিচিত, লেকটাউনে শ্রীভূমি স্পোর্টিং ক্লাবের দুর্গামণ্ডপ উদ্বোধন করেন ব্রাজিল তথা এফসি বার্সেলোনার সাবেক কিংবদন্তি এই ফুটবলার। তবে ফুটবলপ্রেমী বাঙালির কলকাতায় এরকম একজন তারকাকে সামনে পেয়ে যে শুধু পুজো উদ্বোধনের সীমাবদ্ধ থাকবে না তা জানতেন মন্ত্রী। তাই তার জন্য ছোট্ট একটি মাঠও প্রস্তুত রাখা হয়েছিল। সেখানে ফুটবলের ম্যাজিক দেখান রোনালদিনহো। তার বিপরীতে গোলপোস্টে দাঁড়িয়েছিলেন মন্ত্রী সুজিত বসু।

পূজা ক্লাবকর্তা তথা মন্ত্রী সুজিত বসু বলেছেন, প্রতিবছরই পূজা উপলক্ষে নতুন কিছু করে থাকি। সম্প্রতি সদ্য বিশ্বকাপজয়ী আর্জেন্টিনীয় গোলরক্ষক মার্টিনেজ কলকাতায় এসেছিলেন। এবার ব্রাজিলীয়ন তারকা। এই শ্রীভূমির মাঠে ফুটবলের রাজপুত্র মারাদোনাও এসেছিলেন। এটা আমাদের কাছে অত্যন্ত পবিত্র একটা মাঠ।

রোববার সন্ধ্যায় কলকাতা বিমানবন্দরে অবতরণ করেন বিশ্বনন্দিন্ত এই ফুটবলার। ক্রীড়া সংগঠক শতদ্রু দত্তের উদ্যোগেই ফুটবলের এই জাদুকরকে ভারতে নিয়ে আসা হয়। শ্রীভূমির পুজো উদ্বোধনের পরই কলকাতার আহিরীটোলা যুবকবৃন্দ ক্লাবে যান তিনি। আগামী দুইদিন তার একাধিক কর্মসূচি রয়েছে শহরে। বারুইপুর, গ্রীন পার্ক এবং রিষড়ার পূজোতে উপস্থিত থাকবেন তিনি। দেখা করার কথা রয়েছে বাংলার দাদা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সাথে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৬, ২০২৩
ভিএস/নিউজ ডেস্ক

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।