ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

আগরতলা

করোনা রোগীর জন্য বিশেষ ধরনের মাস্ক এনেছে ত্রিপুরা সরকার 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৮ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০
করোনা রোগীর জন্য বিশেষ ধরনের মাস্ক এনেছে ত্রিপুরা সরকার  সংবাদ সম্মেলনে পশ্চিম আসনের সংসদ সদস্য প্রতিমা ভৌমিকসহ অন্যরা 

আগরতলা (ত্রিপুরা): করোনা রোগের চিকিৎসার অন্যতম একটি উপাদান হলো অক্সিজেন। করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য ত্রিপুরা সরকারের স্বাস্থ্য দপ্তর দু’টি বিশেষ ধরনের মাস্ক এনেছে।

মাস্ক দু’টির নাম হলো- মাল্টি ভ্যান্ট মাস্ক ও রি-ব্রিদিং অক্সিজেন মাস্ক।  

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) জিবি হাসপাতালের সভা কক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে এ কথা জানান পশ্চিম আসনের সংসদ সদস্য তথা জিবি হাসপাতালের রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান প্রতিমা ভৌমিক।  

তিনি বলেন, মাল্টি ভ্যান্ট মাস্কের বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো করোনা রোগীদের শরীরে রক্তের পরিমাণ কতটুকু রয়েছে এবং তাকে কী পরিমাণ অক্সিজেন যোগান দেওয়া প্রয়োজন সেই অনুসারে মাস্কের মধ্যে লাগানো রেগুলেটর মিলিয়ে সরবরাহ করা হয়। এ মাস্কগুলো দিয়ে রোগীকে সর্বোচ্চ ১৫ লিটার অক্সিজেন একসঙ্গে সরবরাহ করা সম্ভব।

রি-ব্রিদিং অক্সিজেন মাস্কের বিশেষ বৈশিষ্ট হলো এটির সামনে ৬০০ মিলি লিটার অক্সিজেন রাখার একটা প্যাকেট থাকে। অক্সিজেন সিলিন্ডার থেকে অক্সিজেন প্রথমে প্যাকেটে এসে জমা হয় এবং সেই প্যাকেট থেকে রোগীর শরীরে যায়। এর ফলে আরও সহজে রোগী অক্সিজেন নিতে পারেন এবং খুব দ্রুত রোগীর শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বৃদ্ধি পায়। এছাড়া এ দু’টি মাস্ক ব্যবহার করলে অক্সিজেনের অপচয় কম হয় বলেও জানান তিনি।

প্রাথমিক অবস্থায় ৩০০টি মাস্ক আনা হয়েছে জিবি হাসপাতালের জন্য। এ মাস্কগুলো যদি সঠিকভাবে কাজ করে তাহলে ত্রিপুরা রাজ্যের প্রতিটি হাসপাতাল ও প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের জন্য এমন মাস্ক আনা হবে। এমনকি রোগী পরিবহনকারী অ্যাম্বুলেন্স এমন মাস্ক রাখা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিমা ভৌমিকের সঙ্গে জিবি হাসপাতালের অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২০
এসসিএন/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa