ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ সফর ১৪৪২

আগরতলা

ত্রিপুরার করোনা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে কেন্দ্রীয় দল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০৬ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২০
ত্রিপুরার করোনা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে কেন্দ্রীয় দল ত্রিপুরার করোনা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল

আগরতলা (ত্রিপুরা): ত্রিপুরা রাজ্যে হঠাৎ কী করে করোনার প্রকোপ বেড়ে গেল,  এর কারণ কী তা জানতে ভারত সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রতিনিধি দল ত্রিপুরায় পাঠানো হয়েছে।

তিন সদস্যের প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে রয়েছেন ডা. জি কে মেধি, ডা. ভূপেন ব্রহ্ম এবং ডা. এস কে মজুমদার। প্রতিনিধি দলটি মেঘালয় রাজ্যের রাজধানী শিলং থেকে বৃহস্পতিবার (১৪ মে) রাতে আগরতলা এসে পৌঁছান এবং শুক্রবার (১৫ মে) মহাকরণে ত্রিপুরা সরকারের অতিরিক্ত মুখ্য সচিব এস কে রাকেশসহ উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

এরপর তারা ত্রিপুরা রাজ্যের প্রধান করোনা হাসপাতাল আগরতলা মেডিকেল কলেজ ও জি বি হাসপাতাল, শহীদ ভগৎ সিং যুব আবাসে তৈরি অস্থায়ী করোনা কেয়ার সেন্টারসহ রাজধানী আগরতলার অন্যান্য কোয়ারেন্টিন সেন্টার পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শনকালে এই প্রতিনিধি দলের প্রধান ডা. জি কে মেধি সাংবাদিকদের বলেন করোনা মোকাবিলার জন্য ত্রিপুরা সরকারের স্বাস্থ্য দফতর যে পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে এগুলি সঠিক। করোনা মোকাবিলার জন্য ত্রিপুরা সরকারের নেওয়া পদক্ষেপে তারা সন্তুষ্ট।  

ত্রিপুরা রাজ্যের সবচেয়ে বেশি করোনা আক্রান্ত এলাকাটি হলো ধলাই জেলা, এই জেলাকে নিয়ে তাদের বক্তব্য কি? এমন প্রশ্নের উত্তরে ডা. মেধি বাংলানিউজকে বলেন, তারা সড়কপথে ত্রিপুরা এসেছেন। আসার সময় একদফায় তারা ধলাই জেলায় বৈঠক করেছেন।

শনিবার আবার তারা ত্রিপুরা রাজ্য থেকে যাওয়ার পথে ধলাই জেলাতে স্বাস্থ্য দফতরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। তবে ধলাই জেলায় করোনা প্রতিরোধের জন্য ত্রিপুরা সরকার যে পদক্ষেপ নিয়েছে তা পর্যাপ্ত বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮০৫ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২০
এসসিএন/এমকেআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa