ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

আগরতলা

ঝাড়খণ্ডের জয় উদযাপন ত্রিপুরা কংগ্রেসের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭৫৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৯
ঝাড়খণ্ডের জয় উদযাপন ত্রিপুরা কংগ্রেসের জয় উদযাপন, ছবি: বাংলানিউজ

আগরতলা (ত্রিপুরা): মধ্য ভারতের রাজ্য ঝাড়খণ্ডের বিধানসভা নির্বাচনে জাতীয় কংগ্রেস দলের জয়ে উচ্ছ্বাস আছড়ে পড়েছে উত্তরপূর্ব ভারতের একেবারে প্রান্তিক রাজ্য ত্রিপুরাতেও।

সোমবার (২৩ ডিসেম্বর) ঝাড়খণ্ড রাজ্যের বিধানসভার ভোট গণনা শেষে ক্ষমতাশীন বিজেপি দলকে হটিয়ে নতুন করে ক্ষমতা দখল করে কংগ্রেস ঝাড়খণ্ড মুক্তিমোর্চা দলের জোট সরকার। বিজেপিকে ক্ষমতাচ্যুত করা এবং আরও একটি রাজ্যে কংগ্রেসের উঠে আসায় খুশী ও অনেকটাই চাঙ্গা দলের কর্মী সমর্থকরা।

তারা দেশের বিভিন্ন রাজ্যে ঝাড়খণ্ডের জয় উদযাপন করছে। এই আনন্দ থেকে বাইরে নয় ত্রিপুরা প্রদেশ কংগ্রেস দলও। দলের নেতাকর্মীরা আগরতলার কংগ্রেস ভবনের সামনে বাজি পুড়িয়ে বিজয় উৎসব উদযাপন করেন।

কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন দলের সর্বভারতীয় সম্পাদক বাপ্টু চক্রবর্তী। তিনি জানান, দেশের মানুষ বিজেপি এবং এনডিএ সরকারের অপশাসন থেকে মুক্তি চাইছে। এর প্রমাণ স্বরূপ ঝাড়খণ্ড থেকে বিজেপিকে গদিচ্যুত করেছে। বিজেপি সরকারের সিএএ এবং এনআরসির কারণে দেশের মানুষ বিভ্রান্ত। যে সব মানুষ যুগ যুগ ধরে ভারতে বসবাস করছে, তারাও সিএএ এবং এনআরসির কথা চিন্তা করে রাতে শান্তিতে ঘুমাতে পারছে না। এই পরিস্থিতিতে মানুষ বিজেপি সরকারকে দেশের ক্ষমতা থেকে সরাতে চাইছে।

এমনকি তিনি এ সময় বিজেপি দলের মূল দুই চালিকা শক্তি মোদী ও অমিত শাহকে ভারতের এক সময়ের ধর্ষণ ও খুনের দায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামি রঙ্গা এবং বিল্লার সঙ্গে তুলনা করেন।

তিনি বলেন, ভারতবাসী রঙ্গা-বিল্লার শাসন থেকে মুক্তি পেতে চাইছে। আগামী দিনে দেশ থেকে বিজেপি মুছে যাবে বলেও দাবি করেন তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ০২৫৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৯
এসসিএন/এমআরপি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।