ঢাকা, মঙ্গলবার, ১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৭ মহররম ১৪৪৪

আগরতলা

সান্তাক্লজের আকর্ষণে আগরতলায় জনঢল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১১৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৭
সান্তাক্লজের আকর্ষণে আগরতলায় জনঢল সান্তাক্লজের সঙ্গে ছবি তুলতেও আগ্রহ ছিল তরুণ-তরুণীদের। ছবি: বাংলানিউজ

আগরতলা (ত্রিপুরা): ইংরেজি সালের ক্যালেন্ডার হিসেবে সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বী মানুষের প্রধান উৎসব বড়দিন। এইদিন বেথেলহেম শহরে মাতা মেরির কোলে জন্ম নেন যিশু খ্রিস্ট। 

দিনটি উপলক্ষে ত্রিপুরা রাজ্যজুড়ে খ্রিস্ট ধর্মের পাশাপাশি অন্যান্য ধর্মীয় জনগোষ্ঠীর মানুষও এ আনন্দে মেতে ছিলেন। এদিন রাজধানী আগরতলায় মানুষের ব্যাপক ভিড় লক্ষ্য করা যায়।

 

বিভিন্ন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সান্তাক্লজ সাজিয়ে পথচলতি ছোট ছোট ছেলে-মেয়েদের চকলেট, বিস্কুটসহ নানা উপহার দেওয়া হয়।
 
রাজধানীর শকুন্তলা রোড, সিটি সেন্টার, বিগবাজার, লক্ষ্মী নারায়ণবাড়ী রোডের সেরাওয়ালিসহ আরও কিছু এলাকায় সন্ধ্যার পর থেকে মানুষ ভিড় জমিয়ে ছিলেন।

তবে এদিন সন্ধ্যা হতে উপচে পড়া জনতার ঢল নামে আর এম এস এলাকায়। এখানে কেকের দোকানগুলোর সামনে কয়েক হাজার মানুষের ভিড় জমে।  

রাত বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়তে থাকে ভিড়ও। আট থেকে আশি, সব বয়সী মানুষদের দেখা মেলে এই ভিড়ে। যুবক যুবতীদের মধ্যে বাড়তি উচ্ছাস লক্ষ্য করা গেছে। তাদের অনেকেই পরেছিলেন শান্তার লাল টুপি, হাতে রঙ-বেরঙের বেলুন।

এখানে দাঁড়ানো সান্তাকে সঙ্গে নিয়ে কেউ সেলফি তুলতে ব্যস্ত, আবার কেউ সান্তার হাত থেকে সংগ্রহ করলেন উপহার সামগ্রী।

প্রায় সবার হাতে নানা আকারের কেকের প্যাকেট। সেই সঙ্গে রঙিন আলোক মালায় ঝলমল করছে রাস্তার দুই পাশের দোকানসহ উঁচু উঁচু অট্টালিকা।  

‘আগরতলা শহরের এই দৃশ্য এক লহমায় মনে করিয়ে দেয় বড়দিনের সময়ের কলকাতার পার্ক স্ট্রিটের কথা,’ আর এম এস এলাকায় দাঁড়িয়ে বাংলানিউজকে এভাবেই বলছিলেন অধ্যাপক ড. শ্রীমন্ত রায়।  

আনন্দে সামিল হতে আসা যুবক মুন্না সাহা জানান, প্রতিবছরই বড়দিন উপলক্ষে বন্ধুবান্ধব মিলে আনন্দ করেন তারা। তবে এবছর এমন জন ঢল তিনি প্রথম দেখেছেন।  

সান্তাক্লজই এবারের আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু বলে জানালেন তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ০৩০৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৭
এসসিএন/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa