ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৯, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

আগরতলা

আগরতলায় ৭ মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি উদযাপন ২৫ নভেম্বর

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২০, ২০১৭
আগরতলায় ৭ মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি উদযাপন ২৫ নভেম্বর বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশন অফিসে বৈঠক-ছবি-বাংলানিউজ

আগরতলা: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ভাষণ বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পাওয়ায় আগামী ২৫ নভেম্বর আনন্দ উৎসব উদযাপন করবে আগরতলায় অবস্থিত বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশন।

সোমবার (২০ নভেম্বর) বিকেলে আগরতলার কুঞ্জবন এলাকার বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশন অফিসে এক বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়।  

সহকারী হাইকমিশনার মো. সাখাওয়াত হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশনের দ্বিতীয় সচিব মো. ইকবাল হোসেন, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অমিত ভৌমিক, লেখক দেবব্রত দেবরায়, স্কুল অব সায়েন্সের প্রিন্সিপাল অভিজিৎ ভট্টাচার্য্য, সাংবাদিক দেবাশিষ মজুমদারসহ আগরতলার বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্যরা।

রাজধানীর রবীন্দ্র শতবার্ষিকী ভবনের সামনে আম্রকুঞ্জে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু বিষয়ক গান ও কবিতা আবৃত্তি করা হবে।

স্থানীয় সময় গত ৩০ অক্টোবর ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে অবস্থিত ইউনেস্কোর সদর দপ্তরে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ প্রামাণ্য ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা দেন সংস্থাটির মহাপরিচালক (ডিজি) ইরিনা বোকোভা।

আন্তর্জাতিক তাৎপর্য রয়েছে এমন বিষয়গুলোকে বিশ্ব আন্তর্জাতিক রেজিস্টারের মেমোরিতে তালিকাভুক্ত করা হয়।  

এ সংক্রান্ত তালিকাভুক্তির বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে ইন্টারন্যাশনাল অ্যাডভাইজরি কমিটি (আইএসি)। গত ২৪-২৭ অক্টোবর পর্যন্ত বৈঠক করে ৭ মার্চের ভাষণকে ইউনেস্কো স্বীকৃতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় আইএসি কমিটি।  

বিশ্বে এখন পর্যন্ত মোট ৪২৭টি নথি যুক্ত হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫১ ঘণ্টা, নভেম্বর ২০, ২০১৭
এসসিএন/আরআর


 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa