ঢাকা, সোমবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

ট্রাভেলার্স নোটবুক

শেষ হলো হজ ও ওমরাহ মেলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৫, ২০১৫
শেষ হলো হজ ও ওমরাহ মেলা ছবি : জনি/বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

হজ ও ওমরাহ মেলা প্রাঙ্গণ থেকে: সমাপনী অনুষ্ঠান ছাড়া ও নির্দিষ্ট সময়ের আগেই শেষ হলো চার দিনব্যাপী অষ্টম হজ ও ওমরাহ মেলা।

মেলার শেষদিনের শুরু থেকেই দর্শনার্থীদের উপস্থিতি ছিল খুবই কম।

দেশব্যাপী রাজনৈতিক অস্থিরতা ও উত্তেজনার কারণেই নির্দিষ্ট সময়ের আগে শেষ হয় মেলা।

এর আগে গত শুক্রবার (০২ জানুয়ারি) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অষ্টম হজ ও ওমরাহ মেলা শুরু হয়।

সোমবার (০৫ জানুয়ারি) রাত ৮টায় মেলা শেষ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু অস্থিরতার কারণে বিকেলে তা শেষ হয়ে যায়।

হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) উদ্যোগে মেলার আয়োজন করা হয়।

এতে মোট ১৩৬টি হজ এজেন্সির স্টল ছিল। শেষ দিনে হাবের সভাপতি মোহাম্মাদ ইব্রাহিম বাহার বাংলানিউজকে বলেন, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে  সভা, সমাবেশ নিষিদ্ধ করায় সমাপনী অনুষ্ঠান করা হচ্ছে না।

তাই এর আগেই মেলার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

মেলায় হজ ও ওমরাহ পালনের জন্য নিবন্ধনসহ বিস্তারিত বিষয় আগ্রহীদের জানানো হয়। এছাড়া নানা সুবিধা নিয়ে হজ ও ওমরা প্যাকেজের ঘোষণা দিয়েছে এজেন্সিগুলো।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইটি ইনচার্জ (হজ অফিস) কবির আল মামুন বাংলানিউজকে বলেন, মেলার শুরুর দিন থেকেই দর্শনার্থীদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যণীয়। কিন্তু সোমবারের ঘটনা সবকিছুই মলিন করে দিয়েছে।

তিনি বলেন, মানুষ এখন বেশ সচেতন। যাচাই-বাছাই করে প্যাকেজ কিনছেন অনেকেই।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, মেলা শেষ হওয়ার কথা ছিল রাত ৮টায়। সমাপনী অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়। উদ্ভ‍ূত পরিস্থিতির কারণে আয়োজকরা দুপুরেই মেলা সমাপ্তের ঘোষণা দেন।
 
মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা যায়, দ‍ুপুরের পর থেকেই বিভিন্ন হজ এজেন্সি তাদের স্টলগুলো ভাঙা শুরু করে। বেলা পাঁচটার পর রীতি মতো ব্যানার ও ফেস্টুনসহ প্রায় সব সরঞ্জামাদি নিয়ে যাওয়া হয়।

মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টায় শুরু হয়ে রাত ৮টায় শেষ হয়। মেলায় জানানো হয়, হাব ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে হজ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য দেওয়া আছে।

এসব দেখে শুনে যাচাই-বাছাই করে হজ এজেন্সি থেকে প্যাকেজ নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।

চলতি বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সরকারি ব্যবস্থাপনায় এক লাখ ৫১ হাজার ৬৯০ টাকায় এবং বেসরকারি ব্যবস্থপনায় এক লাখ ৪৮ হাজার ৩৩১ টাকা দিয়ে হজের জন্য নিবন্ধন করা যাবে।

হজ ও ওমরাহ বিষয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের www.hajj.gov.bd  ও www.mora.gov.bd থেকে বিস্তারিত জানা যাবে।

এছাড়া জানা যাবে হাবের ওয়েবসাইট www.habb-bd.com থেকেও।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৫, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa