ঢাকা, রবিবার, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩, ০৬ রজব ১৪৪৪

ট্রাভেলার্স নোটবুক

রাজধানীর সড়কে বাঘ, হরিণ, নববধূ ও বাংলার রাখাল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৪
রাজধানীর সড়কে বাঘ, হরিণ, নববধূ ও বাংলার রাখাল ছবি: রেহানা / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: রাজধানীর সড়কে হঠাৎ বাঘ, হরিণ, ঘোড়া, বাংলার নববধূ ও বরের আগমন ঘটে!

শনিবার বিশ্ব পর্যটন দিবস উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালিতে অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্টস অব বাংলাদেশ (আটাব) ও  বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন এ আয়োজনের মাধ্যমে দেশের পর্যটন শিল্পকে তুলে ধরেছে।

র‌্যালিটি সকাল সাড়ে ৮টায় রাজধানীর মৎস্যভবন থেকে শুরু হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) গিয়ে শেষ হয়।



বিশ্ব পর্যটন দিবসে ‘পর্যটনে উন্নয়ন, সুফল পাবে জনগণ’ স্লোগান নিয়ে র‌্যালিতে বাউল গানের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক, বান্দরবান, কক্সবাজার, কুয়াকাটা, টেকনাফ, সেন্টমার্টিন, মহাস্থানগড়, পাহাড়পুর, হিরণ পয়েন্ট, দুবলার চর, জামতলা টাইগার পয়েন্ট, বাদামতলী সমুদ্র সৈকত, নীলগীরি, নীলাচল, রাঙামাটি, ইনানী সমুদ্র সৈকত ও হিমছড়ির মতো জায়গাগুলোর পরিচয় তুলে ধরা হয়।

আবহমান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিকেও উপস্থাপন করা হয় এ র‌্যালিতে।

এছাড়া গ্রাম বাংলার রাখাল, বর কনে, হিন্দু, মুসলিম, বৌদ্ধ ও খ্রিস্ট্রান ধর্মের মানুষের মিলন বন্ধনের এক রুপ ফুটে ওঠে এতে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল, দোয়েল চত্ত্বরসহ কিছু স্থানের চিত্র প্রদর্শন করেন। গান বাজনা বাদ্য ও নৃত্যের তালে তালে র‌্যালিটি যেন আনন্দ বিনোদনে রুপ নেয়।

অ্যাটাবের সভাপতি এস এন মানজুর মুর্শেদ মাহবুব বাংলানিউজকে জানান, বাংলাদেশে অনেক দর্শনীয় স্থান রয়েছে। দেশের মানুষের কাছে এগুলোর পরিচয় করে দেওয়া উচিত। তবে এর আগে সরকারের উচিত দেশের অবকাঠামোর উন্নয়ন করা।

সকাল ৯টায় টিএসসিতে এসে র‌্যালিটি শেষ হয়। এ সময় সমাপনী বক্তব্য রাখেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, পর্যটন আমাদের শুধু আনন্দ ও বিনোদন দেয় না, এটা আমাদের জাতীয় উন্নয়নেও ভূমিকা রাখে। এ পর্যটন আমাদের জাতীয় আয় বৃদ্ধির মাধ্যম হতে পারে। ২০১৫ সালে সব মানুষের মাঝে আমাদের নিজস্ব পর্যটন শিল্পকে পরিচয় করে দেওয়া হবে।

পাশাপাশি দেশের দর্শনীয় স্থানগুলোকে বিশ্বের কাছেও সমানভাবে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

** পাহাড়ের নতুন ঈর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্র ‘সাজেক’
** বিশ্ব পর্যটন দিবসে ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটির শোভাযাত্রা
** বিমানবন্দরে ফুল দিয়ে বিদেশি-বরণ

বিমানবন্দরে ফুল দিয়ে বিদেশি-বরণ

বাংলাদেশ সময়: ১০১৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa