ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৮ শাবান ১৪৪৫

পর্যটন

পর্যটন, হোটেলের সঙ্গে শ্রমিকের মর্যাদাও রক্ষা করতে হবে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০০৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৩
পর্যটন, হোটেলের সঙ্গে শ্রমিকের মর্যাদাও রক্ষা করতে হবে

ঢাকা: বেসরকারি বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেছেন, সোনারগাঁও হোটেল অনেক ঐতিহ্যের। তাই হোটেলের মর্যাদার সঙ্গে সঙ্গে শ্রমিকের মর্যাদাও রক্ষা করতে হবে।

মালিক-শ্রমিক মিলে ফেয়ার সিদ্ধান্তে আসতে হবে।

সোমবার রাতে সোনারগাঁও হোটেলের বল রুমে হোটেলটির শ্রমিক ও কর্মচারী ইউনিয়নের অভিষেক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মাহবুব আলী বলেন, যে দেশের শ্রমিকদের অধিকার বেশি, সে দেশ তত বেশি উন্নত। আমাদের দেশে শ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে। একটি প্রতিষ্ঠান একটি সফলতা অনেকাংশে নির্ভর করে প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের ওপরে। যেহেতু এটা একটা ফাইভস্টার হোটেল (সোনারগাঁও হোটেল)।

এখানে সেবা নিতে আসে দেশ-বিদেশের অনেক অতিথি। তাদের সন্তুষ্টি প্রতিষ্ঠানের সমৃদ্ধির বড় নিয়ামক হিসেবে কাজ করে। এটাকে যদি অন্যান্য অফিসের মতো বলা হয়, তবে হবে না। পর্যটনকে সমৃদ্ধ করতে হলে পর্যটনের সঙ্গে যারা সম্পৃক্ত তাদের আচার ব্যবহার সুন্দর করতে হবে। সবকিছুর মধ্যে এমন কিছু থাকতে হবে, যাতে একজন একবার আসার পর তিনি দ্বিতীয়বার আসেন।

তিনি বলেন, এই কর্মীদের কারণেই সোনারগাঁও হোটেলে সফলতা এসেছে। করানোর সময় সবচেয়ে আঘাতপ্রাপ্ত হয়েছে আমাদের হোটেলগুলো। সেই সময় করোনার মধ্যে সোনারগাঁও হোটেল আপ্রাণ চেষ্টায় আপতকালীন সময় অতিক্রম করতে পেরেছে। এজন্য এই হোটেলের কর্মীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

তিনি বলেন, একটি পাখির দুটি ডানার মধ্যে যদি একটি ডানা দুর্বল থাকে, তবে ঠিকভাবে উড়তে পারবে না। ঠিক তেমনি একটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে যদি কর্মীরা ঠিক না থাকে, তবে প্রতিষ্ঠানটি আগাতে পারবে না। সোনারগাঁও হোটেলের কর্মচারীদের দাবিতে আমি বলবো আমরা যেন মান-সম্মত ইকুইটিতে আসতে পারি, সে বিষয়ে কাজ করতে। এ বিষয়ে হোটেল মালিকদের পাশাপাশি শ্রমিকদেরও কাজ করতে হবে।

সোনারগাঁও হোটেল কর্মচারীদের প্রতি পর্যটনমন্ত্রী অনুরোধ জানিয়ে বলেন, আপনারা রিজনেবল হবেন। যারা ব্যবস্থাপনায় আছে, তাদের প্রতি অনুরোধ সবাইকে নিয়ে বসে যেটা ফেয়ার হয়, এরকম একটা সিদ্ধান্তে আমাদের আসতে হবে। আমাদের ভাবতে হবে, হোটেলের মর্যাদার সঙ্গেও যেন শ্রমিকের মর্যাদাও সমানভাবে থাকে।

সোনারগাঁও হোটেল শ্রমিক ও কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মো. আজম খানের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোকাম্মেল হোসেন, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. এহছানে এলাহী, জাতীয় শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব কে এম আযম খসরু প্রমুখ।  

অনুষ্ঠানে ইউনিয়নের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১০০৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৩
এমকে/এসআইএস 
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।