ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯, ৩০ জুন ২০২২, ০০ জিলহজ ১৪৪৩

বাংলানিউজ টি-২০ বিশ্বকাপ-২০২১

অস্ট্রেলিয়াকে সহজেই হারিয়ে ইংল্যান্ডের তিনে-তিন

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩০৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩০, ২০২১
অস্ট্রেলিয়াকে সহজেই হারিয়ে ইংল্যান্ডের তিনে-তিন

অস্ট্রেলিয়াকে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টানা তিন জয় তুলে নিয়েছে ইংল্যান্ড। এদিন বোলিং-ব্যাটিং দুই বিভাগেই অজিদের নাস্তানাবুদ করে ইংলিশরা।

শনিবার (৩০ অক্টোবর) দুবাই ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার টুয়েলভের গ্রুপ ওয়ানের ম্যাচে মুখোমুখি হয় অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড। বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় ম্যাচটি মাঠে গড়ায়।

প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে সূচনাটা ভালো না হওয়া অস্ট্রেলিয়া দলীয় ইনিংস শেষ অবধি আর বড় করতে পারেনি। প্রতিপক্ষের বোলারদের দাপটে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৫ রান করে অজিরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ২ উইকেট হারিয়ে ও ৫০ বল হাতে রেখেই জয় তুলে নেয় ইংল্যান্ড।

১২৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৬.২ ওভারে ৬৬ রান তোলেন দুই ওপেনার জেসন রয় ও জস বাটলার। রয় অ্যাডাম জাম্পার বলে ব্যক্তিগত ২২ রানে আউট হলেও অবিচল থাকেন বাটলার। এই ব্যাটার শেষ অবধি দারুণ ফিফটি করে দলকে জয় উপহার দিয়ে অপরাজিত থাকেন। মাত্র ৩২ বলে ৫টি চার ও সমান ছক্কায় ৭১ রান করেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটার। এছাড়া ১৬ রানে অপরাজিত থাকেন জনি বেয়ারস্টো।

টস হেরে এর আগে ইংল্যান্ড বোলারদের তোপে শুরুটা মোটেও ভালো করতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। ব্যাটিংয়ে নেমে বিপয্যয়ে পড়ে দলটি। দলীয় ২১ রানে টপঅর্ডারের ৪ উইকেট হারায়। দ্বিতীয় ওভারে ক্রিস ওকসের বলে ব্যক্তিগত এক রানে বিদায় নেন ডেভিড ওয়ার্নার। পরের ওভারে স্টিভেন স্মিথকে ফেরান ক্রিস জর্ডান।

ওকসের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে মাঠ ছাড়েন ইনফর্ম গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। আর আদিল রশিদের বলে এলবি হওয়া মার্কাস স্টোইনিস শূন্য রানে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন।

পঞ্চম উইকেট জুটিতে অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চের সঙ্গে ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেন ম্যাথিউ ওয়েড। ৩৩ বলে ৩০ রানের এই জুটি ভাঙেন লিয়াম লিভিংস্টোন। ১৮ বলে ১৮ রান করা উইকেটরক্ষক-ব্যাটার ওয়েড জেসন রয়কে ক্যাচ দেন।

সতীর্থদের আসা-যাওয়ার মিছিলেও অবশ্য দারুণ ব্যাটিং করে যান দলনেতা ফিঞ্চ। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ফের তিনি অ্যাশটন অ্যাগারের সঙ্গে অসাধারণ জুটি গড়েন। এই জুটিতে ৩৬ বলে ৪৭ রান আসে। পরে টাইমাল মিলসের বলে ২০ রান করা অ্যাগার বিদায় নেন।

ইংলিশ পেসার জর্ডান নিজের শেষ হওয়া দারুণ এক স্পেল করেন। প্রথম দুই বলেই তিনি ফিঞ্চ ও ৩ বলে ১২ রান করা প্যাট কামিন্সকে ফিরিয়ে হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা তৈরি করেন। ফিঞ্চ ৪৯ বলে ৪টি চারে ৪৪ রান করেন।

ইংলিশ বোলারদের মধ্যে সর্বো ৩টি উইকেট পান জর্ডান। দুটি উইকেট পান ওকস। এছাড়া রশিদ, লিভিংস্টোন ও মিলস একটি করে উইকেট পান।

৪ ওভারে ১৭ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেওয়া জর্ডান ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন।

বাংলাদেশ সময়: ২৩০২ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩০, ২০২১
এমএমএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa