ঢাকা, শনিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

খেলা

ঢাকায় প্রতারণার শিকার কলকাতা মোহামেডান

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৪৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১০
ঢাকায় প্রতারণার শিকার কলকাতা মোহামেডান

ঢাকা: কলকাতা মোহামেডান ক্রিকেট দল ঢাকায় ক্রিকেট খেলছে, অথচ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) খবরটা জানতে পায়নি। দোষটা বিসিবির নয়।

অনানুষ্ঠানিক এক সফরে ঢাকায় এসেছে কলকাতার ঐতিহ্যবাহী কাব দল।

মোহামেডানও অন্যায় করেনি। তাদেরকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ব্যক্তি পর্যায় থেকে। ক্রিকেট কোচেস অ্যাসোসিয়েশন নাম দিয়ে সাবেক ক্রিকেটার হেলাল উদ্দিন একপ্রকার প্রতারণাই করেছেন ভারতীয় দলটির সঙ্গে।

কলকাতা মোহামেডানের ক্রিকেট কমিটির সদস্য সচিব মঈনুদ্দিন মাকসুদ শনিবার বাংলানিউজকে জানিয়েছেন, মূলত প্রীতি ম্যাচ খেলার জন্য ঢাকায় এসেছেন তারা। হেলালই ক্রিকেট কোচেস অ্যাসোসিয়েশনের প্যাডে আমন্ত্রণ পাঠায় মোহামেডানকে।

বিসিবি একাদশ, ঢাকা বিভাগীয় দল এবং আরো বড় বড় দলের সঙ্গে ম্যাচ সূচি তৈরি করে পাঠানো হয়েছিলো কলকাতা মোহামেডান কাবের কাছে। সুযোগটা কাজে লাগাতে এসে উল্টো বেকায়দায় পড়েছেন পশ্চিমবঙ্গের ক্রিকেটাররা।

হোটেল ইমপেরিয়ালে উঠেছে অতিথি মোহামেডান। এরই মধ্যে কোচেস একাডেমির জুনিয়র দলের সঙ্গে একটি ম্যাচও খেলেছে তারা। যদিও প্রথমে তাদেরকে বলা হয়েছে বিসিবি একাদশের সঙ্গে ম্যাচ হচ্ছে।

এবিষয়ে হেলাল উদ্দিন লিটনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে কলকাতা মোহামেডানকে আমন্ত্রণ জানানোর বিষয়টি অস্বীকার করেন। বলেন,“এই সফর সম্পর্কে আমার কোন ধারণা নেই। এ বিষয়ে আমি কিছুই বলতে পারবো না। ”

অথচ হোটেল ইমপেরিয়ালেই কলকাতা মোহামেডানের সঙ্গে পাওয়া গেছে তাকে। জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার মোহাম্মদ রফিককেও ক্রিকেট কোচেস অ্যাসোসেয়িশনের সঙ্গে জড়িয়ে ফেলেছেন হেলাল।

বিসিবির নাম ব্যবহারের কারণ সম্পর্কে জানতে সন্ধ্যায় ফোনে যোগাযোগ করা হলে হেলাল কথা বলতে রাজি হননি। এর কিছুক্ষণ পর মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

এদিকে কলকাতা মোহামেডান দলের খেলোয়াড় এবং কর্মকর্তারা ভয়ে ভয়ে সময় পার করছেন। প্রতারণার অভিযোগ এনে পুলিশে অভিযোগ দায়েরের বিষয়েও ভাবছেন।  

বাংলাদেশ সময়: ২২৩২ ঘন্টা, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa