ঢাকা, শুক্রবার, ৬ কার্তিক ১৪২৮, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

খেলা

শেখ জামালের অনুশীলন হচ্ছে না

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯১৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১৪, ২০১০
শেখ জামালের অনুশীলন হচ্ছে না

ঢাকা: তারকা খেলোয়াড় দলে নেওয়ায় ঝুঁকির মধ্যে পড়ে গেলো লে. কর্নেল শেখ জামাল ধানমিন্ড কাব। পেশাদর লিগের নবাগত দলটির বেশির ভাগ খেলোয়াড়রকেই ছেড়ে দিতে হচ্ছে জাতীয় দলের জন্য।

ফলে এই মুহূর্তে লিগের জন্য খেলোয়াড়দের প্রস্তুত করতে পারছে না কাবটি।

১৪ আগস্ট থেকে বিকেএসপিতে প্রশিক্ষণের জন্য তাবু ফেলার কথা ছিলো শেখ জামালের। কিন্তু তাদের ১২ জন খেলোয়াড় এশিয়ান গেমসের প্রাথমিক দলের সুযোগ পাওয়ায় আপাতত সে পথ বন্ধ হয়ে গেছে। জাতীয় স্বার্থের কথা বিবেচনা করে কাব কর্মকর্তারাও বিষয়টি মেনে নিয়েছেন।

২০ আগস্ট থেকে বিকেএসপিতে শুরু হবে জাতীয় দলের প্রশিক্ষণ। সোমবার নির্বাচিত খেলোয়াড়দের রিপোর্ট করতে হবে জাতীয় দলের কোচদের কাছে। অতএব সহজেই তারকা খেলোয়াড়দের পাচ্ছে না শেখ জামাল। এশিয়ান গেমসের চূড়ান্ত দলের জন্য নির্বাচিত হলে আগামী ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত খেলোয়াড়রাও কাবের থাকবে না। চীনের গুয়াংজুতে ১২ নভেম্বর থেকে ২৭ নভেম্বর হবে এশিয়ান গেমস।
 
এ বিষয়ে দলটির সভাপতি মনজুর কাদের বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমকে বলেন,‘‘জাতীয় স্বার্থে আমাদের ফুটবল দলের অনুশীলন পেছানো হয়েছে। ২০ সেপ্টেম্বর জাতীয় দলের প্রাথমিক ক্যাম্প শেষ হলে আমরা অনুশীলনে নামতে পারবো। আশা করি বিদেশি কোচ দিয়ে অল্প সময়ের মধ্যেও দল ভালোভাবেই প্রস্তুত করা সম্ভব হবে। ”

দলবদলের মৌসুম শুরু হচ্ছে ১ সেপ্টেম্বর থেকে। তার আগেই অনুশীলনের বিষয়কে অন্যরা কিভাবে নিচ্ছে জানতে চাইলে শেখ জামাল সভাপতি বলেন,‘‘খেলোয়াড়রাতো এখন নোম্যান্সল্যান্ডেই আছেন। তারা পেশাদার। যে কোনো দলেই যেতে পারেন। আর তারা যে শেখ জামালে এসেছেন এটাও এখন ওপেন সিক্রেট। ’’

জাতীয় দলের অধিকাংশ খেলোয়াড় শেখ জামালের হওয়ায় একটা সুবিধাও আছে। কারণ জাতীয় দলের আবরণেই অনুশীলনটা সেরে নিতে পারছেন তারা। কাবও অনুশীলনের জন্য বাড়তি খরচের হাত থেকে বেঁচে যাচ্ছে।

১৭ খেলোয়াড়কে নিয়ে দল গোছানো প্রায় শেষ নবাগত শেখ জামালের। মোহামেডান থেকে নয়জন ভিড়েছে শেখ জামাল। তারা হলেন আমিনুল হক (অধিনায়ক), নাসির, ওয়ালি ফয়সাল, এমিলি, আরিফুল হক, মামুন, শাকিল, জাহিদ হোসেন ও কমল।

এছাড়া আবাহনী থেকে যোগ দিচ্ছেন এনামুল, সুজন, মিশু, শাহেদ ও জিয়া। কোচিং স্টাফ হিসেবে শেখ জামাল কথাবার্তা পাকা করেছে জাতীয় দলের সর্বশেষ বিদ্রোহী সার্বিয়ান কোচ জোরান দর্দেভিচ ও দুই সহকারী জোরান ক্রালিয়েদিচ ও বার্বার ডাবর।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২০ ঘন্টা, আগস্ট ১৪, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa