ঢাকা, শনিবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৮, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬ সফর ১৪৪৩

খেলা

বাংলাদেশকে লজ্জা দিলো নেদারল্যান্ডস

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০১১ ঘণ্টা, জুলাই ২০, ২০১০
বাংলাদেশকে লজ্জা দিলো নেদারল্যান্ডস

গ্লাসগো: উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান এরিক সোয়ার্কজিনস্কি ও ওয়েসলি বারেসির ব্যাটিংয়ে ভর করে বাংলাদেশের বিপক্ষে দারুণ জয় তুলে নিয়েছে নেদারল্যান্ডস। বাংলাদেশকে ৬ উইকেটে হারের লজ্জা দিয়েছে তারা।



২০০ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সোয়ার্কজিনস্কি ও বারেসির অর্ধশতকে ভর করে ৭ বল হাতে রেখেই ৪ উইকেটে জয় নিশ্চিত করে নেদারল্যান্ডস।

বিনা উইকেটে ৬১ রানের পর সাকিব ও নাজমুলের বোলিংয়ে ১০৪ রানে যেতেই চার উইকেট খোয়ায় নেদারল্যান্ডস। কিন্তু পঞ্চম উইকেটে বাস জুইদারেন্ট ও বারেসির ৯৬ রানের অপরাজিত জুটি সহজ জয় উপহার দেন দলকে।

নেদারল্যান্ডসের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৭ রানের ইনিংসটি খেলেন সোয়ার্কজিনস্কি। বারেসি করেন অপরাজিত ৬৫ রান মাত্র ৪৩ বলে। এছাড়া ৩৫ রানে অপরাজিত থাকেন জুইদারেন্ট।

সাকিব আল হাসান ও নাজমুল হোসেন দুটি করে উইকেট পান।

এর আগে  সফরকারীরা সাত উইকেট হারিয়ে ১৯৯ রান তোলে নির্ধারিত ৩০ ওভারে।

মাত্র ১৩ রানেই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবালের (২) উইকেটটি হারিয়ে বিপদের শঙ্কা জাগলেও ইমরুল, জুনায়েদ ও জহিরুলের ব্যাটে স্বস্তি ফিরে পায় স্বাগতিকরা।

দ্বিতীয় ওভারেই মুদাচ্ছর বুখারির বলে উইকেট কিপার বুরম্যানের হাতে ধরা পড়েন তামিম। সপ্তম ওভারে দলীয় ৫২ রানে দ্বিতীয় উইকেটের পতন হয় বাংলাদেশের। একইভাবে আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন জুনায়েদ সিদ্দিকী (৩১)।

তৃতীয় উইকেটে জহিরুল ইসলামকে নিয়ে ৮৭ রানের জুটি গড়ে দলকে বড় স্কোরের পথে টেনে নেন অপর উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস।

দলের সর্বোচ্চ ৫৩ রানের ইনিংসটিও আসে ইমরুলের ব্যাটে। এছাড়া জহিরুল করেন ৪১ রান। মাহমুদুল্লাহ ২৮ রানে অপরাজিত থাকেন।

আগের দিনের ভারি বর্ষণে গ্লাসগোর টিটউঠ মাঠ ভেজা থাকায় ৫০ ওভারের ম্যাচটি থেকে ২০ ওভার কমিয়ে আনা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৫, জুলাই ২০, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa