ঢাকা, সোমবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

খেলা

বিশ্বকাপে স্বেচ্ছাসেবক হবেন আনসার সদস্যরা

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২০, ২০১০
বিশ্বকাপে স্বেচ্ছাসেবক হবেন আনসার সদস্যরা

ঢাকা: বিশ্ববিদ্যালয় এবং স্কুল কলেজেরে শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে বিশ্বকাপ ক্রিকেটে স্বেচ্ছাসেবক (ভলেন্টিয়ার) নিয়োগ দেওয়া হবে না। নিরাপত্তার খাতিরে স্বেচ্ছাসেবক নেওয়া হবে বাংলাদেশ আনসার বাহিনী থেকে।

সরকারের স্বীকৃত বাহিনী হিসেবে আনসার থেকে ২০০ জন নারী-পুরুষকে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে বেছে নেওয়া হবে বলে জানান বিশ্বকাপ স্থানীয় আয়োজক কমিটি (এলওসি)’র নিরাপত্তা বিষয়ক পরিচালক অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল মেজবাহ উদ্দিন সেরনিয়াবাত।

এলওসি’র নিরাপত্তা বিষয়ক পরিচালক সোমবার বলেন,“নিরাপত্তার বিষয়ে আমরা কোন আপস করবো না। বাইরে থেকে স্বেচ্ছাসেবক করা হলে সমস্যা হতে পারে। আনসার বাহিনীর শিক্ষিত এবং দক্ষ সদস্যদেরকে এই কাজে লাগানো হবে। সেখানেও ডিজিএফআই’র ছাড়পত্র লাগবে। এককথায় খুব সতর্কতার সঙ্গে আমরা স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ দেব। ”

অতএব কোন ব্যক্তি বা সংগঠন স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগের প্রলোভন দেখালে সেটা হবে প্রতারণার সামিল। এধরণের প্রতারক এবং ঠকবাজদের থেকে সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন মেজবাহ উদ্দিন সেরনিয়াবাত,“বাইরে থেকে যেহেতু আমরা স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ দেব না। আশা করবো সবাই এনিয়ে সচেতন থাকবেন। ’

অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল নিরাপত্তা বিষয়ে এমনিতেই খুঁতখুঁতে। সামান্য অজুহাত পেলেই বাংলাদেশে বিশ্বকাপের খেলা আয়োজন নিয়ে প্রশ্ন তুলবে। সেকারণে নিরাপত্তা বিষয়ে কোন ছাড় দেবে না সরকার। এরই মধ্যে তিনস্থর বিশিষ্ট নিরাপত্তা ব্যবস্থার মহড়া হয়ে গেছে।

বিশ্বকাপ নিয়ে এরইমধ্যে অভিনব প্রতারণার শিকার হয়েছেন দেশের প্রায় দুই থেকে আড়াই’শ ছেলে মেয়ে। কলেজ ছাত্র জাহেদুর রহমান শাওন স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগের ফর্ম বিক্রি করে হাতিয়ে নিয়েছে অনেক টাকা। প্রতারণার শিকার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এবং স্কুল-কলেজের ছেলেমেয়েরা শেষে রোববার শাওনের বাড়ি ঘেরাও করে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন সেরনিয়াবাত। এরপর রাত সাড়ে নয়টার দিকে শাওনকে টহল পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।  

প্রতারণার শিকার জনৈক তরুণ দিপ্ত মিরপুর থানায় মামলা দায়ের করেন শাওনের বিরুদ্ধে। সোমবার অভিযুক্ত শাওনকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত।

বিশ্বকাপ স্থানীয় আয়োজক কমিটির নিরাপত্তা বিষয়ক পরিচচাক বলছিলেন,“শাওনকে ধরার পর স্থানীয় নেতাকর্মীরা ঘটনা মীমাংসার উদ্যোগ নেয়। কিন্তু তাদেরকে যখন বোঝালাম এর সঙ্গে বিশ্বকাপের নিরাপত্তা জড়িত, তারা তখন শাওনকে পুলিশের হাতে তুলে দিতে আপত্তি করেনি। ”

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৬ ঘন্টা, ডিসেম্বর ২০, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa