ঢাকা, শনিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

খেলা

ইংল্যান্ডে অধিনায়ক মাশরাফির পরীক্ষা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৫১ ঘণ্টা, জুলাই ৮, ২০১০
ইংল্যান্ডে অধিনায়ক মাশরাফির পরীক্ষা

নটিংহ্যাম: বাংলাদেশ দল নিয়ে আগাম ধারণা করা খুবই কঠিন। তবু অধিনায়করা আশা দেখান।

আসলে নেতা হিসেবে স্বপ্ন দেখাতে বাধ্য হন। খেলার আগেই তো হার মেনে নেওয়া যায় না। মাশরাফি বিন মুর্তজাও আশা দেখাচ্ছেন। অবশ্য পা ফেলছেন অনেক হিসেব কষে।

‘আগের চেয়ে ভাল খেলবে বাংলাদেশ। ’ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একদিনের ক্রিকেট সিরিজ শুরুর আগের দিন বুধবার অধিনায়ক মাশরাফি নটিংহ্যাম থেকে জাতিকে এই বার্তা পাঠিয়েছেন।

মনে জোর এনে বলেছেন,“জানি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে কাজটি মোটেই সহজ নয়। আমাদেরকে ভাল ক্রিকেট খেলতে হবে। আশা করি সেটা পারবো এবং এবার ভাল খেলবো। ”

এই আগে বলতে মে-জুন মাসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজকে বুঝিয়েছেন নড়ইল এক্সপ্রেস। সব মিলিয়ে টেস্ট সিরিজটা কিন্তু একেবারে মন্দ ছিলো না। লর্ডসের প্রথম টেস্টে পঞ্চম দিন বিকেল পর্যন্ত লড়াই করে হেরেছে টাইগাররা। কিছু ব্যক্তিগত অর্জনও আছে। যার সাক্ষী হয়ে আছে লর্ডস গ্রাউন্ডের অনার্স বোর্ড। তামিম ইকবালের সেঞ্চুরি আর পেসার শাহদাত হোসেন ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিয়ে নাম উঠিয়েছেন অনার্স বোর্ডে। ব্যাটসম্যান জুনায়েদ সিদ্দিকী, ইমরুল কায়েসও দারুণ ধারাবাহিকতা দেখিয়েছেন।       

পেসার মাশরাফিও তাদের দিকেই তাকিয়ে আছেন,“ তামিম ম্যাচের চেহারাই বদলে দিতে পারে। এছাড়া সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম এবং জহুরুল ইসলামদের মধ্যে যে কেউ ভালো খেলার সামর্থ্য রাখে। আশা করি তারা ভালো খেলবে। ”

একটি ভালো ম্যাচ খেলার পরেই দ্বিতীয় টেস্টে হোঁচট খায় বাংলাদেশ। ইনিংস ও ৮০ রানে হারে সাবিক বাহিনী। সেখানেও কিন্তু তামিমের সেঞ্চুরি এবং ইনিংসে সাকিব আল হাসানের পাঁচ উইকেট আছে।

একদিনের সিরিজ একটু ভিন্ন। বড় দৈর্ঘ্যরে ক্রিকেটের চেয়ে একদিনের ম্যাচ ভালো খেলে বাংলাদেশ। সে বিশ্বাস থেকেই উত্তরণ পর্বে পৌঁছাতে চান অধিনায়ক মাশরাফি। আরো একটি উদ্দেশ্য আছে।
অজেয় ইংল্যান্ডকে হারানো। তিন ম্যাচের একটিতে যদি জয় তুলে নেওয়া যায় তবে বাংলাদেশের সামনে কেউ আর বুক উচিয়ে বলতে পারবে না তারা হারেনি।

একটু অন্যরকম ইঙ্গিতই দিয়েছেন ২৬ বছর বয়সী অধিনায়ক। বলেন,“আমি বিশ্বাস করি টেস্টের চেয়ে একদিনের ম্যাচে অনেক ভাল দল আমরা। একদিনের ক্রিকেটেই স্বচ্ছন্দবোধ করি। দেখা যাক এখানে কী হয়?”

সামগ্রিক বিচারে একমাস আগের অবস্থানে নেই বাংলাদেশ। এশিয়াকাপে ভারত, পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কার কাছে টানা তিন ম্যাচ বাজেভাবে পরাজয়ই তার সাক্ষ্য বহন করে। তারওপর বাউন্সি কন্ডিশন। ইংলিশ দলটিও বেশ ফর্মে আছে। বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে ৩-২ ম্যাচে ন্যাটওয়েস্ট সিরিজে হারিয়েছে।

এমন একটি দলের কাছ থেকে জয় ছিনিয়ে নেওয়া যে সহজ নয়, বুঝে গেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক,“অস্ট্রেলিয়াকে টানা তিন ম্যাচে হারিয়ে ন্যাটওয়েস্ট সিরিজ জিতেছে ইংল্যান্ড। সুতরাং জয় পাওয়া মোটেও সহজ হবে না। আমরা নিজেদের খেলায় মনযোগ দেবো। সেটাই আমাদের পরিকল্পনা। ”

বাংলাদেশের বিপক্ষে পরিষ্কার ফেভারিট ইংল্যান্ড বলার অপেক্ষা রাখে না। তারওপর নিজেদের মাঠে খেলা। সম্প্রতি সময়টাও ভাল যাচ্ছে অ্যান্ড্রু স্ট্রাউসদের। কিন্তু পেশাদার দল বলে কথা। প্রতিপক্ষকে মোটেও হালকাভাবে নিচ্ছে না স্বাগতিকরা।

ইংলিশ অধিনায়ক স্ট্রাউস উল্টো বলেছেন সফরকারীদের কোন অঘটনের সুযোগ দেবেন না। তাঁর দৃষ্টিতে,“তারা খুবই ভয়ানক দল। একের পর এক শটস খেলে। বিশেষ করে তামিম ইকবাল তো ভয়ানক। ”

স্ট্রাউস বলেন,“আমি মনে করি না সহজেই জয় পাওয়ার মতো দল আমরা। বাংলাদেশকে হারাতে হলে অনেক পরিশ্রম করতে হবে। সে জন্য আমরা প্রস্তুত। ”

বাংলাদেশ সময়: ২৪৩৫ ঘন্টা, জুলাই ০৮, ২০১০

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa