ঢাকা, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪৩১, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১ শাওয়াল ১৪৪৫

শেয়ারবাজার

১৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি বিসিএমইএর

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২৫ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০২০
১৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি বিসিএমইএর

ঢাকা: আগামী ২০২০-২১ অর্থবছরের জাতীয় বাজেটে ১৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সিরামিক ম্যানুফ্যাকচার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিসিএমইএ)।

বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বিকেলে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান সিনিয়র সচিব আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমের সঙ্গে প্রাক-বাজেট আলোচনায় এ দাবি জানায় সংগঠনটি। রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এনবিআর কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এনবিআরের চেয়ারম্যান বলেন, যেহেতু বাংলাদেশ থেকে সিরামিক রফতানি হচ্ছে। তাই এ শিল্পকে আমরা আরও শক্তিশালী করতে চাই। আমরা লোকাল শিল্পকে সাপোর্ট করবো এটা আমাদের কাজ। কোন কোন ক্ষেত্রে ট্যাক্স বৃদ্ধি করলে লোকাল ইন্ড্রাস্ট্রি আরও শক্তিশালী হবে, সেদিকেও আমরা লক্ষ্য রাখছি। রাজস্ব আহরণ করাই আমাদের কাজ নয় বলেও তিনি জানান।

তিনি আরও বলেন, আপনারা (বিসিএমইএ) যে প্রস্তাব দিয়েছেন সেগুলো গুরুত্বসহকারে দেখা হবে।

আলোচনা সভায় সংগঠনের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম মোল্লা দেশীয় সিরামিক শিল্পখাতের সুরক্ষায় কাঁচামাল ও উপকরণের ওপর হতে আমদানি শুল্ক হ্রাস, আন্ডার ইনভয়েসিংয়ে শুল্ক ফাঁকি রোধে ট্যারিফমূল্য বৃদ্ধি, বিদেশ থেকে তৈরি সিরামিক পণ্যের আমদানি পর‌্যায়ে সম্পূরক শুল্ক বৃদ্ধি, দেশীয় টাইলস্ উৎপাদন পর‌্যায়ে আরোপিত ১৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক সম্পূর্ণ প্রত্যাহার এবং ভ্যাট আইনে নির্দেশনা সংক্রান্ত কতিপয় প্রস্তাব সংশোধনের দাবি জানান।

তিনি বলেন, বর্তমানে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সারাবিশ্ব। আমরা অর্ডার করে বসে আছি, কিন্তু এক্সপোর্ট করতে পারছি না। এ অবস্থায় এ শিল্পকে বাঁচাতে আপনাদের সহযোগিতা কামনা করছি।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক ইরফান উদ্দিন ৫ বছরের জন্য কর সুবিধা দেওয়ার দাবি জানান।

এরপর বিকেল ৪ টায় বাংলাদেশ রিকন্ডিশন্ড ভেহিক্যালস ইম্পোটার্স অ্যান্ড ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বারবিডা) সঙ্গে প্রাক বাজেট আলোচনা করে এনবিআর চেয়ারম্যান।

আলোচনা সভায় বারবিডার সভাপতি আব্দুল হক হাইব্রিড প্রযুক্তির গাড়িতে সিসি স্ল্যাব ও সম্পূরক শুল্কের হার পুনর্বিন্যাসসহ শতভাগ পরিবেশ বান্ধব ইলেক্ট্রিক গাড়ির সম্পূরক শুল্ক হার সম্পূর্ণ প্রত্যাহার করা ও ১২ থেকে ১৫ সিটের মাইক্রোবাসের সম্পূরক শুল্ক হ্রাস করারও প্রস্তাব পেশ করেন।

এ সময় এনবিআরের সদস্য, কমিশনার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং সংশ্লিষ্ট সেক্টরের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৪ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০২০
এসএমএকে/ওএইচ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।