ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৩ মে ২০২৪, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫

শেয়ারবাজার

শেয়ার বিক্রি করে সমন্বয় করতে হবে না

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৯ ঘণ্টা, মে ২, ২০১৬
শেয়ার বিক্রি করে সমন্বয় করতে হবে না

ঢাকা: বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র শুভঙ্কর সাহা বলেছেন, পুঁজিবাজারে ব্যাংকের অতিরিক্ত বিনিয়োগ সমন্বয়ের জন্য কোনো ব্যাংককেই শেয়ার বিক্রি করতে হবে না।

একইসঙ্গে শেয়ারবাজারে অতিরিক্ত বিনিয়োগ করা ব্যাংকগুলোর জন্য পৃথক পৃথক নীতি সহায়তা দিয়ে হলেও তাদেরকে যেন শেয়ার বিক্রি করতে না হয় সে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পাশাপাশি তাদেরকে আইনিসীমার মধ্যেও রাখা হবে।
 
সোমবার (০২ মে) বিকেলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সভাকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।
 
বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র বলেন, পুঁজিবাজারে ব্যাংকগুলোর নিজস্ব ও সমন্বিত উভয় ধরনের অতিরিক্ত বিনিয়োগ সমন্বয়ের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের ঘোষিত নীতি সহায়তা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে দু’টি ব্যাংক তাদের ধারণকৃত শেয়ার এবং সাবসিডিয়ারি কোম্পানিতে প্রদত্ত ঋণ সাবসিডিয়ারি ক্যাপিটালে রূপান্তরের বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে আবেদন করেছে। তাদের এ আবেদন দ্রুত বিবেচনা করা হবে।
 
তিনি বলেন, অন্য যে আটটি ব্যাংকের অতিরিক্ত বিনিয়োগ রয়েছে সে ব্যাংকগুলোকে ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে আবেদন করার পরার্মশ দেওয়া হয়েছে। তবে ব্যাংক থেকে সাবসিডিয়ারি কোম্পানির মূলধন বৃদ্ধি সংক্রান্ত অবেদন বাংলাদেশ ব্যাংকে পাঠানোর আগে তা সংশ্লিষ্ট ব্যাংক ও সাবসিডিয়ারি কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের অনুমোদন নিতে হবে। তাই এ আবেদন ব্যাংকগুলো থেকে আসতে একটু দেরি হচ্ছে। ফলে অনুমোদন দিতেও দেরি হচ্ছে। ব্যাংকগুলো আবেদন করার পরই তাদের সমস্যা সমাধানে প্রয়োজনীয় নীতি সহায়তা বিষয়ক অনাপত্তি বাংলাদেশ ব্যাংক দ্রুত দিয়ে দিবে।

 

এ ব্যবস্থা গ্রহণের ফলে একদিকে ব্যাংকগুলোর নিজস্ব সাবসিডিয়ারির মূলধন বাড়বে, অপরদিকে ব্যাংকগুলোর পুঁজিবাজারে বিনিয়োগসীমা কমে আইনিসীমার মধ্যে নেমে আসবে। এভাবে সব ব্যাংকই আইনিসীমার মধ্যে আসবে।
 
শুভঙ্কর সাহা আরও বলেন, এ প্রক্রিয়ায় কোনো ব্যাংককেই তার অতিরিক্ত বিনিয়োগ সমন্বয়ের জন্য কোনো শেয়ার বিক্রি করতে হবে না। অধিকন্তু ব্যাংকগুলোর সমস্যার ধরন ভিন্ন বিধায় পৃথক পৃথকভাবে তাদেরকে নীতি সহায়তা প্রদানের বিষয়টি বিবেচনা করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে সঠিকভাবে নীতি সহায়তা প্রদানের জন্য এ বিষয়ে কোনো প্রজ্ঞাপন জারি করা হচ্ছে না বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
 
পুঁজিবাজারে যে ১০টি ব্যাংকের অতিরিক্ত বিনিয়োগ রয়েছে আইন অনুযায়ী তা আগামী ২১ জুলাইয়ের মধ্যে বিক্রি করতে হতো। এতে পুঁজিবাজারে শেয়ার বিক্রির চাপ বাড়ার আশঙ্কা করছেন বিনিয়োগকারীরা। আর আশঙ্কা থেকে সাম্প্রতিক সময়ে টানা দরপতন হচ্ছে পুঁজিবাজারে। এ অবস্থায় বিনিয়োগকারীদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ব্যাংকগুলোর অতিরিক্ত বিনিয়োগ সমন্বয়ে কিছুটা ছাড় দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৬ ঘণ্টা, মে ০২, ২০১৬
এসই/জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।