ঢাকা, সোমবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

প্রবাসে বাংলাদেশ

বস্টনে শহীদ দিবসের আলোচনা সভা

ডেস্ক রিপোর্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২১২ ঘণ্টা, মার্চ ১, ২০১২
বস্টনে শহীদ দিবসের আলোচনা সভা

বস্টন : মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বস্টনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ক্যামব্রিজের ৪০২ রিঞ্জ অ্যাভিনিউর কম্যুনিটি সেন্টারে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।



নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা রাতুল বড়ুয়ার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল ইউসুফের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও বস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. সৈয়দ আবু হাসনাত।

অনুষ্ঠানে বিশেষ বক্তা বাহান্নর ভাষা আন্দোলন নিয়ে নিজ নিজ গবেষণালব্ধ বক্তব্য রাখেন রোডস আইল্যান্ড-এর  ব্রাউন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান এবং বস্টনের অন্যতম প্রধান নর্থ-ইস্টার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপিকা ড. সামান্থা ক্রিস্টানসেন।

তাদের আলোচনায় উঠে আসে বাঙালি জাতির মাতৃভাষার সম্মানের দাবি আদায়ের আন্দোলন আর তার মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার আন্দোলনের সূত্রপাতের ইতিহাস ও তারই ধারাবাহিকতায় একাত্তরে মহান স্বাধীনতা অর্জনের ইতিহাস।

গবেষকদ্বয় বিদেশের মাটিতে নতুন প্রজন্মের বাঙালির বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমে বাংলা ভাষার প্রচার ও প্রসারের তাৎপর্য তুলে ধরেন।
 
আলোচনায় অংশগ্রহণকারীরা একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি ম্যাসাচুসেটস শাখার সভাপতি ইতিহাসবিদ অধ্যক্ষ আহমেদ হাসান সাতচল্লিশের পর থেকে বাংলা ভাষা নিয়ে পশ্চিম পাকিস্তানিদের ষড়যন্ত্র আর তার বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবসহ সকল ভাষা সৈনিকের আন্দোলন এবং রাষ্ট্রভাষা হিসেবে বাংলার প্রতিষ্ঠা পাওয়ার ইতিহাস  বর্ণনা করেন।

ভাষা আন্দোলনের তাৎপর্য ও ইতিহাস নিয়ে আরো আলোচনা করেন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের দু’ অধ্যাপক ড. গর্গ চ্যাটার্জি এবং ড. সাব্বীর মির্জা।

আলোচনায় আরো অংশ নেন- শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ এম আমান উল্লাহ, মুজতবা আল মাহমুদ, নাজদা আলম, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক শহীদ সন্তান ইঞ্জিনিয়ার উজ্জল বড়ুয়া, নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক মিন্টো কামরুজ্জামান এবং যুগ্ম-আহবায়ক রকিবুল চৌধুরী রনি।


সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবদুর রাজ্জাক, সালাউদ্দিন চৌধুরী, জিয়াউল হাসান, ফাইজুল ইসলাম, নাজমুল হাসান, আবু সাইয়িদ, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ রহমান মন্টু, ইভা হাসনাত, টিঙ্কু বড়ুয়া, ফরিদা শিমু, মঞ্জুরী ইউসুফ, তারিক আদনান প্রমুখ।

দেশে বাংলা ভাষার আরো বেশি দাফতরিক প্রয়োগ এবং জাতিসংঘে বাংলাকে অন্যতম দাফতরিক ভাষা হিসেবে গ্রহণ করানোর পদক্ষেপ নেয়ায়  নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান।
 
উল্লেখ্য, বিদেশের মাটিতে বাংলাদেশের এই গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় দিবসের আলোচনা সভায় একত্রে এত অধিক সংখ্যক গুণী শিক্ষাবিদদের সমাবেশ, তাঁদের জ্ঞানগর্ভ আলোচনা ও বিশ্লেষণ, উচ্চতর পরিবেশনা ও  উপস্থাপনা বস্টনবাসীর প্রভূত প্রশংসা অর্জন করে।
 
সভার শুরুতে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশিত হয় এবং মহান একুশে ফেব্রুয়ারির ভাষা শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

আলোচনার পর নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক জুয়েল বড়ুয়া এবং মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা মিসেস রাজু বড়ুয়ার পরিচালনায় একুশের সঙ্গীত পরিবেশন করেন কিশলয় সঙ্গীত বিদ্যালয়ের শিশু শিল্পীরা।

বাংলাদেশ সময় : ১১৫৫ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০১২

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa