ঢাকা, রবিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাজনীতি

বনভোজনের জন্য ছাগল চুরির অভিযোগে যুবলীগ কর্মীকে গণপিটুনি 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬১৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩, ২০২২
বনভোজনের জন্য ছাগল চুরির অভিযোগে যুবলীগ কর্মীকে গণপিটুনি 

ঠাকুরগাঁও: বনভোজনের জন্য ছাগল চুরি করে পালানোর সময় ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জের এক যুবলীগ কর্মীসহ দু’জনকে ধরে গণপিটুনি দিয়েছেন জনতা।  

সোমবার (০৩ অক্টোবর) দুপুরে পাশের রানীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

যুবলীগ নেতাসহ দু’জনকে গণপিটুনি দেওয়ার একটি ভিডিও ক্লিপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। যুবলীগের এ নেতার নাম হাবীবুল্লাহ হাবীব। তিনি নিজেকে পীরগঞ্জ পৌর আওয়ামী যুবলীগের ধর্মবিষয়ক সম্পাদক হিসেবে পরিচয় দিয়ে আসছিলেন। হাবীব পৌর শহরের গুয়াগাও মহল্লার জবাইদুরের ছেলে বলে জানা গেছে।  
অপর জনের নাম মিরাজুল ইসলাম। তিনি পীরগঞ্জ উপজেলার তাজপুর গ্রামের মোহাম্মদ কোম্পানীর ছেলে।  

তারা উভয়ে সদর উপজেলার মহেশপুর গ্রামের একটি আম বাগান থেকে ছাগল চুরি করে মোটরসাইকেলে করে নিয়ে পালানোর সময় জনতার হাতে ধরা পড়েন।
প্রত্যক্ষদর্শী সলেমান আলী বলেন, নেকমরদ বাজারে তাদের গণপিটুনি দেওয়ার সময় তারা স্বীকার করেন যে, বনভোজনে খাওয়ার জন্য ছাগল চুরি করেছিলেন তারা৷ 

ছাগলের মালিকের মেয়ে সুমাইয়া জানান, মহেশপুরের একটি আম বাগান থেকে তাদের একটি খাসি মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছিলেন ওই দুই যুবক। এসময় প্রতিবেশী এক ভাইসহ তিনি ধাওয়া করেন এবং নেকমরদ বাজার এলাকায় জনতার সহায়তায় তাদের ধরে ফেলেন। এসময় জনতা তাদের গণপিটুনি দেন।  

এ বিষয়ে হাবিবুল্লাহ হাবীবের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তার ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।  
 
পীরগঞ্জ পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহজালাল বাবু বলেন, হাবীব ধর্মবিষয়ক সম্পাদক নয়। সাধারণ সদস্য। তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১২ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৩, ২০২২
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa