ঢাকা, বুধবার, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ০৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাজনীতি

পুলিশ আওয়ামী লীগের লাঠি দে‌খে কিনা প্রশ্ন দুদুর

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২
পুলিশ আওয়ামী লীগের লাঠি দে‌খে কিনা প্রশ্ন দুদুর

ঢাকা: আওয়ামী লীগও যে লাঠি বহন করে সেটি পুলিশ দেখে কিনা প্রশ্ন করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে এক সেমিনারে পুলিশের উদ্দেশে এ প্রশ্ন করেছেন তিনি।

সাউথ এশিয়ান ইয়ুথ রিসার্চ সেন্টার আয়োজিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শাসনামলে বাংলাদেশ-ভারত দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক শীর্ষক গোলটেবিল সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দুদু।

বিএনপির এ নেতা বলেন, আপনারা (পুলিশ) শুধু বিরোধী দলের লাঠি দেখেন অন্যদের লাঠি দেখেন না? আওয়ামী লীগ লাঠি বহন করে সেটা দেখেন না? দেশে এক শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

১৯৭১ সালে যুদ্ধের আগে যারা গণতন্ত্র, নিজের অধিকার প্রতিষ্ঠার কথা বলেছে তাদেরকে ভারতের চোর বলা হতো। আর এখন গণতন্ত্র ও বেঁচে থাকার অধিকার চাওয়া হচ্ছে, ভোটের অধিকার চাওয়া হচ্ছে। আমাদেরকে আগুন সন্ত্রাসী আখ্যা দেওয়া হচ্ছে। এখন বলা হচ্ছে লাঠি নিয়ে বের হওয়া যাবে না; কিন্তু লাঠির আড়ালে তো বাংলাদেশের পতাকা আছে। বাংলাদেশের পতাকা তো গণতন্ত্র ও স্বাধীনতার প্রতীক। আপনারা কি পতাকা বহন করতে দেবেন না? লাঠির দিকে আপনাদের নজর কেন? পতাকার দিকে নজর নাই কেন?

ছাত্রদলের সাবেক এ সভাপতি বলেন, ভারতের কাছে আমাদেরকে একেবারে নতজানু করে ফেলেছে বর্তমান সরকার। এত নিচে নামিয়ে ফেলেছে যে পা চাটার মতো অবস্থা। কিন্তু আমরা তো পা চাটার জাতি না। ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে বাঙালিরা প্রথম স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছে। দ্বিতীয় স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছে জিয়াউর রহমান পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। কিন্তু বাঙালি জাতিকে হাস্যকর পাত্রে পরিণত করেছে বর্তমান সরকার। ভারত আমাদের প্রতিবেশী রাষ্ট্র তাদের সাথে ভালো সম্পর্ক রাখতে চাই। কিন্তু অধিকার হারা মানুষের মতো থাকতে চাই না।

গোলটেবিল সেমিনারে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড সাইফুল হকসহ সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা বক্তব্য দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭২২ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২
এমএইচ/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa