ঢাকা, সোমবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাজনীতি

'দেশের জনগণ ছাড়া শেখ হাসিনার আর কেউ নেই’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২
'দেশের জনগণ ছাড়া শেখ হাসিনার আর কেউ নেই’ বক্তব্য রাখছেন যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ শেখ ফজলে শামস পরশ। ছবি: জিএম মুজিবুর 

ঢাকা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ দেশের জনগণ ছাড়া আর কেউ নেই বলে উল্লেখ করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ।  

তিনি বলেছেন, শেখ হাসিনা কখনো ভাবেননি যে, বাঙালিরা তাঁর বাবাকে মেরেছে।

সেজন্য শেখ হাসিনা বাবার অসম্পূর্ণ কাজ বাস্তবায়নে পথে নেমেছেন। জাতশত্রুকেও সঙ্গে নিতে হয়েছে। যেমন ধরুন- খালেদা জিয়াকে সঙ্গে নিয়ে স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন করলেন।

মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ আয়োজিত শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।  

পরশ বলেন, খালেদার গুণধর পুত্র তারেক রহমান। তারেকের বাবা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিলো আর তারেক পুরো আওয়ামী লীগ পরিবারকে গ্রেনেড দিয়ে হত্যা করতে চেয়েছিলো।  

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনের সুযোগ নেই জানিয়ে যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, আদালতের রায়ে সংবিধানে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ২০১১ সালে বাতিল হয়েছে। বিএনপি যদি সংবিধান পরিবর্তন করতে চায় তাহলে শেখ হাসিনার সরকারের অধীনে নির্বাচন করে ক্ষমতায় গিয়ে সংবিধান পরিবর্তন করতে হবে।  

তিনি বলেন, সংবিধানই এই অধিকার ও শক্তি দিয়েছে। রাষ্ট্র পরিচালনায় শেখ হাসিনা মানবিক। শেখ হাসিনা আজ শুধু জাতীয় নেতা নন, তৃতীয় বিশ্বের নেতা।

সরকারের উন্নয়নের প্রশংসা করে পরশ বলেন, অসাম্প্রদিয়ক ও বিজ্ঞানমনস্ক জাতি গঠনে শেখ হাসিনা শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মঙ্গা-দুর্ভিক্ষ দূর হয়েছে। যোগাযোগ ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে- মেট্রোরেল, পদ্মা সেতু নির্মাণ হয়েছে। পদ্মা সেতুর কারণে জিডিপিতে ১.২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে।  

বিএনপির উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, বিশ্ব যখন এমন একটা সংকট অতিক্রম করছে, তখন শেখ হাসিনা ছাড়া দেশে আর কারও নেতৃত্ব দেওয়ার যোগ্যতা নেই। বর্তমান পরিস্থিতির গুরুত্ব বোঝার সক্ষমতা বিএনপির নেতাকর্মীদের নেই। ক্ষমতায় যাওয়ার লিপ্সা পরিহার করেন। যোগ্যতার মাপকাঠিতে আপনারা পিছিয়ে।  

‘খালেদা জিয়ার ক্ষমতা থাকলে নিজের পুত্রকে শাসন করতে পারতেন। কিন্তু পারেননি। খালেদার একমাত্র পরিচয় এখন স্বৈরাচারের স্ত্রী’। মন্তব্য করেন যুবলীগ চেয়ারম্যান।

শেখ ফজলে শামস পরশ প্রত্যাশা ব্যক্ত করে বলেন, এদেশের যুবসমাজ শেখ হাসিনাকে দেখে জনগণের জন্যে ত্যাগ বিসর্জন করবেন। প্রয়োজনে মাঠে নামবেন। ২০৪১ সালে জ্ঞানভিত্তিক সমাজ গঠনে যুবলীগ নেতৃত্ব দেবে।  

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রবীণ সাংবাদিক অজয় দাশগুপ্ত, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাঈনুল হোসেন খান নিখিল।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২
এনবি/এসএ

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa